1474465642

বিপিএলের টিভিস্বত্ত্ব থাকছে চ্যানেল নাইনেই

প্রকাশিত :২২.০৯.২০১৬, ১২:২৫ পূর্বাহ্ণ
সারাবেলা ডেস্ক:বাংলাদেশ প্রিমিয়ার লিগের (বিপিএল) গভর্নিং কাউন্সিলের সভাশেষে বুধবার জানানো হলো, আগের ঘোষনামতোই ৪ নভেম্বর শুরু হচ্ছে টুর্নামেন্টের চতুর্থ আসর। এবারের আসরেও ঢাকা ও চট্টগ্রাম ছাড়া কোথাও খেলা হবে না।
তবে বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের সভা থেকে মূল গুরুত্বপূর্ণ সিদ্ধান্ত জানা গেলো যে, চ্যানেল নাইনের সাথে তাদের সম্প্রচার চুক্তি বাতিল হচ্ছে না। এ বছরও সম্প্রচারের দায়িত্বে থাকছে এই প্রতিষ্ঠানটি। এ ছাড়া জানানো হলো, এবারের আসরের দল গঠনের জন্য পুরোনো পাঁচ দল গত আসরের দু জন করে স্থানীয় খেলোয়াড়কে দলে ধরে রাখার সুযোগ পাবে। পাশাপাশি এবার বিপিএলে ভেন্যু বাড়ার যে সম্ভাবনা ছিলো, সেটাও কার্যকর হচ্ছে না।
এর আগে জানা গিয়েছিলো যে, নানাবিধ শর্তভঙ্গের কারণে এবার আর সম্প্রচারের দায়িত্ব পাচ্ছে না প্রথম তিন আসরের সম্প্রচারকারী চ্যানেল নাইন। কিন্তু গতকাল বিপিএল গভর্নিং কাউন্সিলের চেয়ারম্যান আফজালুর রহমান সিনহা বললেন, আপাতত প্রতিষ্ঠানটির সাথে ঝামেলা মিটে গেছে তাদের, ‘আমাদের বিপিএল শুরু হয়েছে চ্যানেল নাইট দিয়েই। ওনাদের সঙ্গে কিছু বিষয় নিয়ে ঝামেলা ছিল। এখন উনাদের সঙ্গে এটা নিয়ে আজকে মিটিং হয়েছে। এই মিটিংয়ে এই সমস্যা সমাধান হয়েছে। আমরা যেভাবে চাচ্ছি উনারা এভাবে কাজ করবেন বলে জানিয়েছেন।’
খেলোয়াড় নিলাম ও নতুন দল সংক্রান্ত তথ্যগুলো আগেই জানা ছিলো। তারপরও আনুষ্ঠানিক ভাবেই জানানো হলো, ‘প্লেয়ার্স বাই চয়েজ’ নামের নিলাম অনুষ্ঠান হবে ৩০ সেপ্টেম্বর বিকাল তিনটার সময়। খেলা শুরু হবে ৪ নভেম্বর,  টুর্নামেন্ট শেষ হবে ৭ কিংবা ৮ ডিসেম্বর। এবারের আসরে দুটি নতুন দল যোগ হয়েছে রাজশাহী ও খুলনা। আরও অনেক দলই আগ্রহ প্রকাশ করেছে বলেও জানানো হলো। তবে সময় কম বলে আর দল বাড়াতে চায়নি কর্তৃপক্ষ।
 বিপিএল চেয়ারম্যান জানালেন, আগের বারের পাঁচটি দল তাদের দু জন করে খেলোয়াড়কে ধরে রাখার সুযোগ পাবে, ‘নিলামের ব্যাপারে এখনো চূড়ান্ত কিছু হয়নি। তবে ট্যাকনিক্যাল কমিটি ২-১ দিনের ভেতরে এই ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেবে। দেশী এ ক্যাটাগরির দুইজন করে খেলোয়াড় তারা রেখে দিতে পারবে। পুরনো দল পাঁচটা তারা হয়তো দুইজন করে এ ক্যাটাগরির খেলোয়াড় রেখে দিতে পারবে। বিদেশীদের ব্যাপারে এখনো কোন সিদ্ধান্ত হয়নি।’