নোয়াখালীতে গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার, স্বামী আটক

প্রকাশিত :০৪.০৩.২০১৭, ১১:১৪ পূর্বাহ্ণ

সারাবেলা ডেস্ক : নোয়াখালীর সূবর্ণচর উপজেলার পূর্বচাটা ইউনিয়নে কৌহিনুর আক্তার (২৩) নামে এক গৃহবধূর মাটিচাপা দেওয়া মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। এসময় তার স্বামী মিল্লাতকে (৩২) আটক করা হয়েছে। কৌহিনুর আক্তার ও মিল্লাত ভোলা জেলার বাসিন্দা। কয়েক বছর আগে তারা সূবর্ণচরের চর মজিদ গ্রামে জায়গা কিনে বসবাস শুরু করেন।

শুক্রবার রাত ১১টায় উপজেলার পূর্ব চরবাটা ইউনিয়নের চর মজিদ গ্রামের নিজ বাড়ির একটি ঘরের ভেতর মাটিতে পুঁতে রাখা অবস্থায় মরদেহটি উদ্ধার করা হয়।

স্থানীয়রা জানায়, কয়েক বছর আগে কৌহিনুর আক্তার ও মিল্লাত দম্পত্তি ভোলা জেলা থেকে নোয়াখালীর সূবর্ণচর উপজেলার চর মজিদ গ্রামের জায়গা কিনে বসত শুরু করেন। দীর্ঘদিন ধরে এই দম্পত্তির মধ্যে যৌতুকসহ বিভিন্ন বিষয় নিয়ে কলহ চলে আসছিল। এর জের ধরে বৃহস্পতিবার কোনো এক সময় মিল্লাত তার স্ত্রী কৌহিনুর আক্তারকে হত্যা করে মাটিতে পুঁতে রাখে। অনেকদিন কৌহিনুরকে না দেখে প্রতিবেশীদের সন্দেহ হয়। তারা শুক্রবার রাতে মিল্লাতের ঘরে গিয়ে দেখেন মাটিচাপা দেওয়া একটি গর্ত। পরে তারা পুলিশে খবর দেয়। পুলিশ এসে ঘটনাস্থল থেকে মাটিতে পুঁতে রাখা অবস্থায় গৃহবধূর মরদেহ উদ্ধার করে। এসময় মিল্লাতকে আটক করে পুলিশ।

চরজব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. নিজাম উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।