আপন জুয়েলার্সের মালিকের গাড়ি জব্দ

প্রকাশিত :২৩.০৫.২০১৭, ৫:২৪ অপরাহ্ণ

সারাবেলা ডেস্ক : স্বর্ণ ও ডায়মন্ড জব্দের পর এবার আপন জুয়েলার্সের অন্যতম মালিক দিলদার আহমেদের একটি বিলাসবহুল মার্সিডিজ গাড়ি জব্দ করেছে

শুল্ক গোয়েন্দা ও তদন্ত অধিদফতর। মঙ্গলবার বেলা ১১টায় সিলেটের জিন্দাবাজারের এক বাসা থেকে গাড়িটি জব্দ করা হয়।
শুল্ক গোয়েন্দা অধিদফতরের মহাপরিচালক (ডিজি) ড. মইনুল খান বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

পরে বেলা ৩টায় নিজ কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে ডিজি জানান, অর্থের উৎস সন্ধান করতে গিয়ে প্রথমে শুল্ক ফাঁকি ধরা পড়ে। এরপর দেখা

যায় গাড়িটির ম্যানুফ্যাকচার ২০১১ সালের কিন্তু ২০০২ সালের দেখিয়ে রেজিস্ট্রেশন করা। তাই গাড়িটি জব্দ করা হয়েছে।

তিনি বলেন, ট্রাকিংয়ের মাধ্যমে গাড়িটি জব্দ করা হয়েছে। শুল্ক ফাঁকি দিয়ে গাড়িটি ক্রয় করা হয়েছিল বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে। গাড়িটি কার্নেট

সুবিধায় ক্রয় করা হয়েছিল কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। গাড়িটি সম্পর্কে যাবতীয় তথ্য সংগ্রহ ও যাচাই-বাছাই চলছে।

শুল্ক গোয়েন্দা সূত্র জানায়, গাড়িটি সিলেটের জিন্দাবাজার এলাকার একটি বাড়ি থেকে আটক করা হয়। ওই বাড়িটি দিলদার আহমদের মামার। মার্সিডিজ

ব্র্যান্ডের গাড়িটির মূল্য প্রায় দেড় কোটি টাকা।

বিআরটিএ রেজিস্ট্রেশন অনুযায়ী গাড়িটি ২০১১ সালে তৈরি। তবে অনুসন্ধানে গোয়েন্দারা জানতে পেরেছেন, গাড়িটি ২০০২ সালে তৈরি করা। ট্যাম্পারিং করে

বিআরটিএ-এর কাছ থেকে লাইসেন্স নেয়া হয়েছে।

গোয়েন্দা তথ্য অনুযায়ী, রেইন ট্রি হোটেলে ধর্ষণের ঘটনায় করা মামলার প্রধান আসামি সাফাত জব্দকৃত এ গাড়িটি ব্যবহার করেই সিলেটে পালিয়ে যায়।

 
আ-সা/ছামিউল/অপরাধ