adnan_harun_

মদ সম্পর্কে জানেন না রেইনট্রির এমডি আদনান

প্রকাশিত :২৩.০৫.২০১৭, ৫:২৬ অপরাহ্ণ

সারাবেলা ডেস্ক : বারের কোনো লাইসেন্স না থাকলেও বনানীর রেইন ট্রি হোটেলে কীভাবে মদ এলো তা জানেন না বলে জানিয়েছেন হোটেলটির এমডি শাহ

মোহাম্মদ আদনান হারুন। মঙ্গলবার শুল্ক গোয়েন্দা কার্যালয়ে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে বেরিয়ে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, শুল্ক ফাঁকির বিপক্ষে প্রয়োজনীয় কাগজ আমরা জমা দিয়েছি। শুল্ক গোয়েন্দারা আমাদের ডকুমেন্ট পেয়ে সন্তুষ্ট।

হোটেলটির বারের কোনো লাইসেন্স নেই। তবে মদ কীভাবে এসেছিল তা জানি না।

এছাড়া আনুষ্ঠানিক কার্যক্রম শুরুর আগেই জন্মদিনের পার্টির আয়োজন কীভাবে হয়েছিল তা তদন্ত করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি।

গতকাল সোমবার শুল্ক গোয়েন্দার তলবি নোটিশের কার্যকারিতা ছয় মাসের জন্য স্থগিত করেন হাইকোর্ট।

পরে বিকেলে হাইকোর্টের দেয়া আদেশ ছয় সপ্তাহের জন্য স্থগিত করেন সু্প্রিম কোর্টের চেম্বার জজ আদালত।

সুপ্রিম কোর্টের আপিল বিভাগের ওই আদেশের ফলে হোটেল কর্তৃপক্ষকে আজ (মঙ্গলবার) শুল্ক গোয়েন্দা

ও তদন্ত অধিদফতর সদর কার্যালয়ে হাজিরা দেন।

দুই তরুণী ধর্ষণের ঘটনায় গত ১৭ মে রেইন ট্রি হোটেলের মালিক শাহ মো. আদনান হারুনের হাজিরা দেয়ার কথা ছিল।

কিন্তু তিনি অসুস্থতার কারণ দেখিয়ে আইনজীবীর মাধ্যমে এক মাস সময় চেয়ে আবেদন করেন।

ওই আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে তাকে ২৩ মে বেলা ১১টায় সাক্ষাতের সময় ধার্য করা হয়।

 
আ-সা/ছামিউল/অপরাধ