milk

ক্যান্সার ছাড়াও স্তনে ব্যথা হতে পারে

প্রকাশিত :০৭.০৭.২০১৭, ৭:৪১ অপরাহ্ণ
  • সারাবেলা ডেস্ক : সাধারণভাবে যে কোন বয়সের নারীদের স্তনে ব্যথা হতে পারে। যদিও একথা সত্যি, স্তনে ব্যথা হওয়াটা স্তন ক্যান্সারের একটি লক্ষণ। তবে ব্যথা হলেই যে আপনি স্তন ক্যান্সারে আক্রান্ত এমনটি ভাবার কোন কারণ নেই। আরও নানা কারণেও স্তনে ব্যথা হতে পারে। দেখা গেছে, বিশ্বব্যাপী শতকরা ৬৫ ভাগেরও বেশি বয়স্ক নারীরা তাদের জীবনকালের মধ্যে অন্তত একবার হলেও স্তনে ব্যথা ভোগ করেন। এক্ষেত্রে স্তন ক্যান্সারের সঙ্গে সম্পর্কিত নয় এমন নয় ধরনের ব্যথার কথা বলেছেন বিশেষজ্ঞরা। এগুলো হলো-

চক্র ব্যথা

সাইক্লিক পেইন বা চক্র ব্যথা নারীরা সাধারণত ঋতুস্রাবের পর অনুভব করেন। চক্রের ব্যথা ঋতুস্রাবের চক্রের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত। এ সময় ইস্ট্রোজেন এবং প্রোজেস্টেরন হরমোনের মাত্রা পরিবর্তিত হয়। তখন ঋতুস্রাবের প্রায় দুই সপ্তাহ আগে থেকেই এই ব্যথা অনুভূত হয়। সাইক্লিক স্তন ব্যথা প্রধানত ২০ বছর থেকে ৪০ বছর বয়সীদের উপর প্রভাব ফেলে।

অ-চক্র ব্যথা
অ-চক্রের স্তন ব্যথাকে ‘লক্ষ্যমাত্রা-অঞ্চল’-এর স্তন ব্যথা হিসেবে উল্লেখ করা হয়। স্তনের একটি নির্দিষ্ট অংশে নারীরা এই ব্যথা অনুভব করেন। আবার এই ব্যথা এক স্তন কিংবা উভয় স্তনেও অনুভূত হতে পারে। তবে এটি মাসের চক্রের সঙ্গে সম্পর্কযুক্ত নয়। এ ব্যথা সাধারণত স্তনে আঘাত, সংক্রমণ, চাপ বা উদ্বেগের কারণে হতে পারে। এটি সাধারণত ৪০ বছরের উপরে এবং ৫০ বছরের নিচে বয়সীদের মধ্যে বেশি অনুভূত হতে দেখা যায়।

ব্রা’র কারণে ব্যথা
বেশি ঢোলা কিংবা বেশি টাইট ব্রা পরিধান করলে স্তনের স্বাস্থ্য ক্ষতিগ্রস্ত হয়। সারাদিন এ ধরণের ব্রা পরিধানে স্তনে ব্যথা হওয়ার পাশাপাশি ত্বকে দাগ পড়ে। একইসঙ্গে ঘাড় ব্যথা এবং পিঠের ব্যথার জন্যও দায়ী এই ব্রা।

সার্জারির কারণে ব্যথা
অস্ত্রোপচারের কারণেও স্তনে ব্যথা হতে পারে। এটি কখনই ক্যান্সারের কারণ হতে পারে না। তবে অস্ত্রপচারের কারণে এই ব্যথা কয়েক দিন পর কিংবা বা কয়েক বছর পরেও অনুভূত হতে পারে। আবার এই ব্যথা দীর্ঘ সময়ের জন্য স্থায়ী হতে পারে। একইসঙ্গে এটি আপনার দৈনন্দিন জীবনেও প্রভাব ফেলতে পারে।

ওষুধ সেবনে ব্যথা
আপনি যদি নিয়মিত ওষুধ সেবন করে থাকেন সেক্ষেত্রেও স্তনে ব্যথা হতে পারে। ক্লোরপ্রোমাজিন, অ্যানাড্রোল এবং মেথেলডোপা হিসাবে ব্যবহৃত ওষুধগুলি স্তনে ব্যথার জন্য দায়ী। আবার জন্মনিয়ন্ত্রণের ওষুধ থেকেও স্তনে ব্যথা হতে পারে।

টিস্যুর কারণে ব্যথা
এক বা উভয় স্তনবৃন্তের বিকাশের কারণে ব্যথা হতে পারে। পোস্টমেনোপাসাল হরমোনের কারণে সাধারণত বড় হয়ে উঠা নারীরা এই ব্যথা অনুভব করেন। এককথায়, মাসিক ক্ষতুস্রাব হওয়ার আগে এই ব্যথা হয়।

স্তনের গঠনে ব্যথা
স্তনের গঠনের সময়টাতেও ব্যথা অনুভূত হতে পারে। তবে এই ব্যথা নিয়ে দুশ্চিন্তার কোন কারণ নেই। মেনোপজ পর্যায়ে পৌঁছার পর এ ব্যথা এমনিতেই চলে যায়।

স্তন আর্থ্রাইটিস
স্তনে বাতের ব্যথা কথাটি অদ্ভুত শোনাতে পারে। তবে কস্টোচড্রাইটিস (এটি হলো একটি প্রদাহ, যেখানে উপরের পাঁজরগুলি ক্রোমোজোমের সঙ্গে যুক্ত হয় যা স্তনের স্তন বা স্টার্টামের সঙ্গে যুক্ত থাকে) হলো এক প্রকার বাত। এর কারণে পাঁজর বুকের সে স্থানটাতে যুক্ত থাকে সেই অংশে জ্বালাপোড়া সৃষ্টি করতে পারে। আবার দুর্বল শারীরিক অঙ্গবিন্যাসের কারণেও কোস্টোচ্ড্রাইটিস হতে পারে। সাধারণত এই ধরণের ব্যথা বয়স্ক নারীদের ক্ষেত্রে বেশি দেখা যায়।

স্তনের প্রদাহ
সাধারণত দুগ্ধদানকারী নারীরা এই ধরণের ব্যথা অনুভব করেন। দুধ সঠিকভাবে নির্গত না হলে এ ধরণের সমস্যা দেখা দেয়।

সাবধানতা
যদিও সব ব্যথা ক্যান্সার নয়, তারপরও ব্যথা হলে হেলাফেলা করবেন না। ব্যথা অনেকদিন স্থায়ী হলে চিকিৎসকের পরামর্শ নিন।

 

তথ্যসূত্র: কিউর জয় ডট কম