Meg-Lanning-2

নারী বিশ্বকাপে ভারতকে হারিয়ে সেমিতে অস্ট্রেলিয়া

প্রকাশিত :১৩.০৭.২০১৭, ১২:২৪ অপরাহ্ণ

সারাবেলা ডেস্ক : নারী বিশ্বকাপে বেশ দাপটের সঙ্গেই এগিয়ে যাচ্ছিল ভারতীয় ক্রিকেট দল। স্মৃতি মনদানা, পুনম রাউত, মিতালি রাজ, হারমানপ্রিত কাউরসহ একঝাঁক উদীয়মান এবং প্রতিভাবান ক্রিকেটার নিয়ে ভারতীয়রা তো বিশ্বকাপ জয়ের স্বপ্নেই বিভোর ছিল।

কিন্তু উড়তে থাকা সেই দলটিকে স্রেফ মাটিতে নামিয়ে আনলো অস্ট্রেলিয়া। ব্রিস্টলের কাউন্টি ক্রিকেট গ্রাউন্ডে অনুষ্ঠিত ভারতকে ৮ উইকেটে উড়িয়ে দিয়ে সেমিফাইনাল নিশ্চিত করলো অস্ট্রেলিয়া। পুনম রাউতের অসাধারণ সেঞ্চুরি এবং মিতালি রাজের রেকর্ড গড়ার পরও ভারত মাত্র ২২৭ রানের লক্ষ্য ছুঁড়ে দিয়েছিল অসিদের সামনে।

জবাবে ব্যাট করতে নেমে অধিনায়ক মেগ ল্যানিংয়ের সুপার ব্যাটিংয়ের সামনে টিকতেই পারলো না ভারতীয় বোলাররা। দুই উইকেটের পতন ঘটাতে পারলেও মেগ ল্যানিং এবং এলিসি পেরির দুর্দান্ত ব্যাটে ভর করে ৪৫.১ ওভারেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় অস্ট্রেলিয়া। ল্যানিং ৮৮ বলে ৭৬ এবং পেরি ৬৭ বলে ৬০ রান করে অপরাজিত থাকেন।

বুধবারের ম্যাচটিতে একই সঙ্গে ভারতীয় ক্রিকেটে ছিল শৃঙ্গ ছোঁয়ার দিন এবং হতাশায় ডুবে যাওয়ার দিনও। এই দিনেই ব্রিস্টলে বিশ্বরেকর্ড এল ভারতীয় অধিনায়ক মিতালি রাজের ব্যাট থেকে। আবার অস্ট্রেলিয়ার কাছে বড় ব্যবধানে হেরে বিশ্বকাপের সেমিফাইনালে ওঠাটাও কঠিন হয়ে গেল ভারতীদের কাছে।

বুধবারের শুরুটা হয়েছিল পুনম রাউতের দুর্দর্ষ সেঞ্চুরি দেখা দিয়ে। এরপর স্বপ্ন দেখা মিতালির ব্যাটে। যখন তিনি নারীদের ওয়ানডে ক্রিকেটে সর্বোচ্চ রানসংগ্রাহকের তালিকায় এক নম্বরে উঠে আসলেন। শার্লট এডওয়ার্ডসের ৫৯৯২ রান টপকে যান তিনি। একই সঙ্গে প্রথম নারী ক্রিকেটার হিসেবে ৬ হাজার রানের গণ্ডিও পার হয়ে যান তিনি। মিতালির এখন মোট রান সংখ্যা ৬০২০।

ব্রিস্টলে টস জিতে ভারতকেই ব্যাট করার আমন্ত্রন জানায় অস্ট্রেলিয়া। ব্যাট করতে নেমে শুরুতেই স্মৃতি মনদানার উইকেট হারিয়ে বসে ভারত; কিন্তু দ্বিতীয় উইকেট জুটিতে পুনম রাউত এবং মিতালি রাজ গড়েন ১৫৭ রানের বিশাল জুটি। ১১৪ বলে ৬৯ রান করে মিতালি আউট হয়ে গেলেও সেঞ্চুরি পূরণ করেন মিতালি রাউত। ১৩৬ বলে ১০৬ রানের দুর্দান্ত এক ইনিংস খেলেন তিনি।

এছাড়া হারমানপ্রিত কাউর করেন ২৩ রান। বাকি ব্যাটসম্যানরা ছিলেন আসা-যাওয়ার মিছিলে। শেষ পর্যন্ত ৭ উইকেট হারিয়ে ২২৬ রান সংগ্রহ করে ভারত।

জবাব দিতে নেমে দুই অসি ওপেনার নিকোল বোল্টন এবং বেথ মুনি ৬২ রানের জুটি গড়েন। ৩৬ রান করেন বোল্টন। বেথ মুনি করেন ৪৫ রান। এই দু’জন ১০৩ রানে আউট হয়ে যাওয়ার পর মেগ ল্যানিং এবং এলিসি পেরি মিলে ১২৪ রানের জুটি গড়েন। ২৯ বল হাতে রেখেই জয়ের লক্ষ্যে পৌঁছে যায় অস্ট্রেলিয়া।