venus

বোন সেরেনাকে ভেনাসের ম্যাসেজ

প্রকাশিত :১৬.০৭.২০১৭, ৪:৩৪ অপরাহ্ণ

সারাবেলা ডেস্ক : ভেনাস উইলিয়ামস সর্বশেষ গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা জিতেছেন ২০০৮ সালে। দীর্ঘ ৯ বছর পর সুযোগ এসেছিল গ্র্যান্ড স্লাম শিরোপা জয়ের। কিন্তু উইম্বলডনের ফাইনালে উঠেও তার সেই স্বাদ পূরণ হলো না। রোববার ফাইনালে হেরে গেছেন তাকেই আদর্শ মেনে বেড়ে উঠা স্প্যানিশ মেয়ে গারবিনে মুগুরুজার কাছে। হারের পরই ভেনাস ছোট সেরেনাকে পাঠান আবেগি এক ম্যাসেজ।
ফাইনালে জয় দূরের কথা, দ্বিতীয় সেটে প্রতিদ্বন্দ্বিতাই গড়তে পারেননি ভেনাস। মুগুরুজা ম্যাচটা জিতে নিয়েছেন সহজেই, ৭-৫, ৬-০ গেমে। ভেনাস পারবেন কী করে, যার উপস্থিতি তাকে সবচেয়ে বেশি উজ্জীবিত-অনুপ্রাণিত করে, আদরের ছোট বোন সেই সেরেনা উইলিয়মাসই যে গ্যালারিতে ছিলেন না।
ছোট বোন। শুধু রক্তের এই সম্পর্কই নয়, ছোট এই বোনটি ভেনাসের জীবনে তার চেয়েও বেশি কিছু। সেরেনাই তার সবচেয়ে অন্তরঙ্গ বন্ধু, অনুপ্রেরণার বাতিঘর। রোববার মুগুরুজার সঙ্গে ভেনাস যখন শিরোপার লড়াইয়ে ব্যস্ত, জানের জান সেই সেরেনা তখন সাত-সমুদ্রের ওপাড়ে নিজ দেশ যুক্তরাষ্ট্রে। অন্তঃসত্ত্বা হওয়ার কারণে সেরেনা এখন টেনিস থেকে দূরে। গর্ভের সন্তানের ক্ষতি হয়, সেই শঙ্কায় ইচ্ছা থাকা সঙ্গেও বোনকে অনুপ্রেরণা দিতে ইংল্যান্ডে আসা হয়নি।
বোনকে উজ্জীবিত করতে ইংল্যান্ডে না আসতে পেরে সেরেনার কেমন লেগেছে তা জানা যায়নি। তবে খেলার সময় ছোট বোনটির মুখ দেখতে না পারায় একদমই ভালো লাগেনি ভেনাসের। অল ইংল্যান্ড ক্লাবে খেলার সময় ছোট বোনকে কতটা মিস করেছেন ভেনাস, সেটা বোঝা গেল রোববারের ফাইনাল শেষেই। হারের পরই নিজের মোবাইল ফোন সেটা হাতে নিয়ে ভেনাস কি যেন লিখেন। পরে কৌতুহলটা মিটিয়ে দিয়েছেন ভেনাস নিজেই। বলেন সেরেনাকে ম্যাসেজ পাঠিয়েছেন তিনি। আবেগি সেই ম্যাসেজে ভেনাস লেখেন, ‘সেরেনা, আমি তোমাকে খুব মিস করছি। আমি আমার সেরা চেষ্টাটাই করেছি, ঠিক যেভাবে তুমি জেতো। কিন্তু পারিনি। তবে আমি মনে করি আবার সুযোগ আসবে।’
বড় বোনের ম্যাসেজের বিনিময় হিসেবে সেরেনা কোনো ম্যাসেজ পাঠিয়েছেন কিনা সেটা অবশ্য জানা যায়নি।