ত্রিপুরাপাড়ায় ‘অজ্ঞাত রোগে’ আক্রান্ত শিশুদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। যদিও এখন বলা হচ্ছে তারা হামে আক্রান্ত। ছবি: প্রথম অালো'র সৌজন্যে
ত্রিপুরাপাড়ায় ‘অজ্ঞাত রোগে’ আক্রান্ত শিশুদের চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের শিশু ওয়ার্ডে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। যদিও এখন বলা হচ্ছে তারা হামে আক্রান্ত। ছবি: প্রথম অালো'র সৌজন্যে

সীতাকুণ্ডে ৯ শিশুর মৃত্যুর কারণ হাম

প্রকাশিত :১৭.০৭.২০১৭, ৬:০১ অপরাহ্ণ

সারাবেলা ডেস্ক : চট্টগ্রামের সীতাকুণ্ডের মধ্যম সোনাইছড়ির ত্রিপুরাপাড়া নয়টি শিশুর মৃত্যুর কারণ হাম। এই পাড়ার কোনো মানুষ সরকারি স্বাস্থ্যসেবা পায় না। আর এখানকার শিশুদের কোনো দিন কোনো টিকা দেওয়া হয়নি।

আজ সোমবার বিকেলে এক সংবাদ সম্মেলন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবদুল কালাম আজাদ এসব তথ্য জানান। সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগ নিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) সম্মেলন কক্ষে এই সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়।

সংবাদ সম্মেলনে বলা হয়, স্বাস্থ্য অধিদপ্তর মৃত ও হাসপাতালে ভর্তি শিশুদের রক্তের নমুনা পরীক্ষা করে নিশ্চিত হয়েছে যে এসব শিশু হামের জীবাণু দ্বারা আক্রান্ত। তবে, অপুষ্টিতে ভুগছিল বলে দাবি করেন মহাপরিচালক। তিনি জানান, ওই পাড়াতে ৮৫টি পরিবার আছে এবং ৩৮৮ বাসিন্দা আছে। এদের কেউ হামের টিকা পায়নি।

তবে, লিখিত বক্তব্যে মহাপরিচালক ঘটনার পর নেওয়া পদক্ষেপ সম্পর্কে বলেন, ‘ত্রিপুরাপাড়ার ঘটনায় স্বাস্থ্য অধিদপ্তর এবং তার অধীন প্রতিষ্ঠানগুলো এবং বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা চমৎকার দায়িত্ব পালন করেছে।’

সংবাদ সম্মেলনে রোগ নিয়ন্ত্রণ শাখার পরিচালক সানিয়া তাহমিনা, আইইডিসিআরের পরিচালক মীরজাদী সাবরিনা, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের পরিচালক (প্রাথমিক স্বাস্থ্যপরিচর্যা) এ বি এম জাহাঙ্গীর আলম, চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন আজিজুর রহমান সিদ্দীকী প্রমুখ উপস্থিত ছিলেন।