অন্য গ্রহে এলিয়েন খুঁজতে অণুবীক্ষণ যন্ত্র

প্রকাশিত :২৫.০৭.২০১৭, ১:১৭ অপরাহ্ণ

সারাবেলা ডেস্ক : পৃথিবীর বাইরে অন্য কোনো গ্রহে জীবনের অস্তিত্ব আছে কিনা তা গবেষণা করে বের করতে অণুবীক্ষণ প্রযুক্তি তৈরি করছেন যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়া ইন্সটিটিউট অব টেকনোলজির (ক্যালটেক) গবেষকরা।
তাদের বানানো ডিভাইসটির নাম দেয়া হয়েছে ডিজিটাল হলোগ্রাফিক মাইক্রোস্কোপ। এটি মহাকাশে জীবাণুর খোঁজ করবে। প্রযুক্তি সাইট নেক্সট ওয়েবের প্রতিবেদনে এ তথ্য উঠে এসেছে।

এর আগে ১৯৭৬ সালে ‘ভাইকিং’ মহাকাশ প্রকল্পে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা সংস্থা নাসা সক্রিয়ভাবে পৃথিবীর বাইরে জীবনের সন্ধান চালিয়েছিল। এর পর থেকে এখন পর্যন্ত এই সন্ধান চালানোর সবচেয়ে ভালো উপায় কী হতে পারে তা বিজ্ঞানীরা স্পষ্ট করে বলেননি।
জীবিত কোনো প্রাণীকে পাঠানোর মাধ্যমে এ গবেষণা করতে গেলে, তা আর ফিরে আসবে কিনা তা নিশ্চিত করার কোনো উপায় নেই।
মহাকাশে পাওয়া নমুনাগুলো নিয়ে পরীক্ষা চালাতে বিজ্ঞানীদের হাতে প্রচলিত অণুবীক্ষণ যন্ত্র ব্যবহারের কোনো সুযোগ নেই। এই ডিভাইসে কোনো বস্তুকে বড় করে দেখাতে লেন্স ব্যবহারের প্রচলিত কৌশল ব্যবহার করা হয়নি।
এতে লেজার ব্যবহার করা হয়েছে, যা অণুবীক্ষণিক উপাদানগুলোর তিনটি নড়াচড়া প্রদর্শন করবে।
পরে এই নড়াচড়া কোনো জড়বস্তুর নাকি কোনো জীবের তা নিয়ে বিশ্লেষণ চালানো হবে।
ক্যালটেক যে ডিজিটাল হলোগ্রাফিক মাইক্রোস্কোপ তৈরি করছে, তা এনসেলাডাস থেকে ছাড়া বাষ্পে কোনো জীবাণুর অস্তিত্ব আছে কিনা তা খুঁজে বের করবে। বিজ্ঞানীরা উত্তর মেরুতে এই ডিভাইসের পরীক্ষা চালিয়েছেন।
এখন তারা দক্ষিণ মেরুর আরও কঠিন পরিবেশে পরীক্ষা চালানোর পরিকল্পনা করছেন। ক্যালটেকের অধ্যাপক জেয় নাদিয়াও বলেন, আমরা এমন একটি অণুবীক্ষণ যন্ত্র বানানোর চেষ্টা করছি, যা পৃথিবীর সবখানে জীবনের সন্ধান করতে আমাদের সক্ষমতা সর্বোচ্চ করবে। কারণ যদি আমরা পৃথিবীর সম্ভাব্য সব কঠিন পরিবেশে জীবনের সন্ধান চালাতে আমাদের সক্ষমতা সর্বোচ্চ করতে পারি তাহলে আমরা অন্যান্য গ্রহে তা সন্ধানে যতটা সম্ভব কাছাকাছি যেতে পারব।