fucrul

‘রায়ের বিরুদ্ধে ক্ষমতাসীন দলের তৎপরতা রাষ্ট্রদ্রোহীতার সামিল’

প্রকাশিত :১৭.০৮.২০১৭, ৩:২৩ অপরাহ্ণ

সারাবেলা ডেস্ক : ক্ষমতাসীন সরকার সরাসরি বিচার বিভাগের বিরুদ্ধে অবস্থান নিয়েছে বলে অভিযোগ করেছেন বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, ক্ষমতাসীনরা একদলীয় শাসন প্রতিষ্ঠা করতে রাষ্ট্রের প্রধান তিনটি স্তম্ভকে ধ্বংসের ষড়যন্ত্র করছে। এ ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াতে জনগণের প্রতি আহ্বান জানান তিনি।
আজ বৃহস্পতিবার বিএনপির সাবেক মহাসচিব ব্যারিস্টার আব্দুস সালাম তালুকদার এর ১৮তম মৃত্যুবার্ষিকী উপলক্ষে আলোচনা সভা ও দোয়া মাহফিলে এসব কথা বলেন।

রাষ্ট্রপতির সঙ্গে প্রধানমন্ত্রীর সাক্ষাতের সমালোচনা করে ফখরুল বলেন, সংবিধানের ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায়ের বিরুদ্ধে ক্ষমতাসীন দলের নেতাদের তৎপরতা রাষ্ট্রদ্রোহীতার সামিল। এজন্য ভবিষ্যতে তাদের জনগণের কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে।
বুধবার রাতে ষোড়শ সংশোধনীর রায় নিয়ে বঙ্গভবনে রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদের সঙ্গে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার আলোচনা হয়েছে বলে জানান আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। ওই সময় তিনিসহ আইনমন্ত্রী আনিসুল হক এবং অ্যাটর্নী জেনারেল মাহবুবে আলম উপস্থিত ছিলেন।
গত ১ আগস্ট ষোড়শ সংশোধনী বাতিলের রায় পূর্ণাঙ্গ প্রকাশের পর ক্ষমতাসীন দল আওয়ামী লীগের একাধিক মন্ত্রীসহ অনেক নেতার সমালোচনার মুখে পড়েন প্রধান বিচারপতি। তাদের অভিযোগ রায়ে ‘বঙ্গবন্ধুকে নিয়ে কটাক্ষ ও অবমূল্যায়ন করা হয়েছে’।
জিয়াউর রহমানের শাসনামলে প্রতিষ্ঠিত সুপ্রিম জুডিশিয়াল কাউন্সিল ফিরিয়ে আনায় এই রায়কে ‘ঐতিহাসিক’ বলছে বিএনপি।
ওই রায়ের পর্যবেক্ষণে প্রধান বিচারপতি দেশের রাজনীতি, সামরিক শাসন, নির্বাচন কমিশন, দুর্নীতি, সুশাসন ও বিচার বিভাগের স্বাধীনতাসহ বিভিন্ন বিষয়ে পর্যবেক্ষণ তুলে ধরেন।
আইনমন্ত্রী আনিসুল হক ও অ্যাটর্নী জেনারেল মাহবুবে আলম রায়ের পর্যবেক্ষণের ‘আপত্তিকর’ মন্তব্য ‘এক্সপাঞ্জ’ (বাদ) দেওয়ার উদ্যোগ নেওয়ার কথা জানিয়েছেন।