তান্ত্রিক

তন্ত্রসাধনার নামে ১০ মাসের শিশুকে মাটিতে পুঁতল তান্ত্রিক

প্রকাশিত :২৬.০৮.২০১৭, ৪:৪৯ অপরাহ্ণ

সারাবেলা ডেস্ক : এক তান্ত্রিক  তন্ত্রসাধনার বলি দিল দশ মাসের এক শিশুকে। এমনই অভিযোগে চাঞ্চল্য ছড়ায় ভারতের হুগলি জেলার খানাকুলে।

দেশটির পূর্ব মেদিনীপুর জেলা থেকে জ্বর নিয়ে ‘চিকিৎসার’ জন্য এসে শেষ পর্যন্ত ‘বলি’ হতে হয়েছে শিশুটিকে।

চিকিৎসায় সুস্থ করতে না পারায় মারা যায় শিশুটি।

আর এরপরই শিশুটিকে মাটিতে পুঁতে দেয় ওই তান্ত্রিক।

শিশুটির বাবা-মায়ের এমনই অভিযোগ।

শুক্রবার সকালেই খানাকুল থানার পুলিশ শিশুটির দেহ উদ্ধার করে।

তান্ত্রিককে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।

জেরা করা হচ্ছে শিশুটির বাবা—মাকেও।

খুন করা হয়েছে নাকি তন্ত্রসাধনার জন্য বলি দেওয়া হয়েছে, তা দেখছে পুলিশ।

তাঁতিশাল এলাকার উদনা গ্রামে বিকাশ রায় নামে এক ব্যক্তি বছর দুয়েক আগে তন্ত্রসাধনা শুরু করে।

তুকতাক ও ঝাড়ফুঁক করে জ্বর বা কোনও অসুখ সারানো যায়, এমনই আশ্বাস দিত।

মাস খানেক আগে পূর্ব মেদিনীপুরের মাংরুল থেকে দশ মাসের রণিত গঙ্গোপাধ্যায়কে নিয়ে আসেন তার বাবা-মা।

জ্বরে ভুগছিল রণিত।

বাবা রাজু গঙ্গোপাধ্যায়ের অভিযোগ, তিনদিন আগে বিকাশ আশ্বাস দেয়, তন্ত্রসাধনা করে শিশুর অসুখ সারিয়ে দেবে সে।

এর জন্য রণিতকে রাতে রেখে যেতে হবে।

‘অন্ধবিশ্বাস’-এ বাবা-মাও রেখে যান শিশুটিকে। গতকালই রণিত মারা যায়।

স্থানীয়রা দুর্গন্ধ পেয়ে পুলিশে খবর দেন।

 

আ-সা/ আজাদ