pm

‘পুলিশকে জনবান্ধব হয়ে কাজ করতে হবে’

প্রকাশিত :১৪.০৯.২০১৭, ১:৩৯ অপরাহ্ণ

সারাবেলা ডেস্ক: পুলিশ বাহিনীকে আইনের রক্ষকের ভূমিকায় দেখতে চান বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, দেশের প্রচলিত আইন, সততা ও নৈতিক মূল্যবোধই হবে পেশাগত দায়িত্ব পালনের পথ প্রদর্শক। আরও পেশাদার ও জনবান্ধব হয়ে কাজ করতে হবে।

আজ বৃহস্পতিবার রাজশাহীর চারঘাট উপজেলার সারদায় অবস্থিত বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে শিক্ষানবিশ সহকারী পুলিশ সুপারদের শিক্ষা সমাপনী কুচকাওয়াজে অংশ নিয়ে প্রধানমন্ত্রী এ কথা বলেন।

শেখ হাসিনা বলেন, শান্তি নিরাপত্তা ও শৃঙ্খলার প্রতীক বাংলাদেশ পুলিশ। শুধু স্বাধীনতা সংগ্রামেই নয়, দেশের সঙ্কটময় মুহূর্তে দেশের পুলিশ সদস্যরা সাহসিকতার সঙ্গে দায়িত্ব পালন করেছেন। গণতন্ত্রের ধারাবাহিকতা রক্ষা এবং সুশাসন প্রতিষ্ঠায় বাংলাদেশ পুলিশের আন্তরিকতা, কর্মদক্ষতা ও পেশাদারিত্ব দেশবাসীর কাছে প্রশংসিত হচ্ছে।

নবীন পুলিশ কর্মকর্তাদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি নবীন পুলিশ কর্মকর্তাদের বলবো, পুলিশ সদস্যদের পেশাগত দায়িত্ব পালনের সময় জনগণের মৌলিক অধিকার, মানবাধিকার ও আইনের শাসনকে সর্বাধিক গুরুত্ব দিতে হবে। আমার দৃঢ় বিশ্বাস নবীন পুলিশ কর্মকর্তাগণ অর্জিত জ্ঞান, শৃঙ্খলা, পেশাদারিত্ব, সততা ও নিষ্ঠার সঙ্গে দেশের সার্বিক কল্যাণে নিয়োজিত থাকবেন।

স্বাধীনতার পর পুলিশ বাহিনীকে জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান প্রথম দক্ষ করে গড়ে তোলার কাজ শুরু করেন বলে জানান প্রধানমন্ত্রী। তিনি বলেন, বঙ্গবন্ধু ৭ মার্চের ভাষণে অর্থনৈতিক মুক্তির কথা বলেছিলেন। আর অর্থনৈতিক মুক্তির জন্য সর্বপ্রথম দরকার আইনশৃঙ্খলার স্থিতিশীলতা। এজন্য আমরা সর্বোতভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি পুলিশ বাহিনীকে দক্ষ ও আধুনিক করে গড়ে তুলতে। আমরা আমাদের সীমিত সামর্থ্য দিয়ে সে উদ্যোগ বাস্তবায়ন করে যাচ্ছি।

এ সময় পুলিশের উন্নয়নে তার সরকারের নেওয়া বিভিন্ন উদ্যোগের বিবরণ তুলে ধরেন প্রধানমন্ত্রী।

অনুষ্ঠানে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খান, পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম, তথ্য ও প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, রাজশাহী সদর আসনের সংসদ সদস্য ফজলে হোসেন বাদশা, রাজশাহী জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাম্মাদ আলী সরকার, আইজিপি একেএম শহীদুল হক, অতিরিক্ত আইজিপি ও বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমির অধ্যক্ষ মোহাম্মদ নাজিবুর রহমান, উপাধ্যক্ষ আবদুল্লাহ আল মাহমুদসহ সামরিক ও বেসামরিক কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকাল ১০টায় টায় বাংলাদেশ পুলিশ একাডেমিতে পৌঁছায় প্রধানমন্ত্রীকে বহনকারী হেলিকপ্টার। পরে প্রধানমন্ত্রী শিক্ষানবিশ সহকারী পুলিশ সুপারদের শিক্ষা সমাপনী কুচকাওয়াজে অংশ নেন। প্যারেড পরিদর্শন শেষে প্রশিক্ষণকালে বিভিন্ন ক্ষেত্রে শ্রেষ্ঠত্ব অর্জনকারীদের মধ্যে পুরস্কার বিতরণ করেন শেখ হাসিনা।