oals

পেসারদের নিয়ে দারুণ আত্মবিশ্বাসী ওয়ালশ

প্রকাশিত :২৩.০৯.২০১৭, ১১:১৭ পূর্বাহ্ণ

সারাবেলা ডেস্ক : ২৮ সেপ্টেম্বর দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে শুরু হচ্ছে বাংলাদেশের দুই টেস্ট ম্যাচের সিরিজ। এ সিরিজ সামনে রেখে তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে নিজেদের ঝালিয়ে নিচ্ছে টাইগাররা। দক্ষিণ আফ্রিকার ভিন্ন কন্ডিশন এবং বাউন্সি ও দ্রুতগতির উইকেটে সুবিধা পাবেন পেসাররা। ম্যাচে সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করবেন তারা। কন্ডিশন বিবেচনায় বাংলাদেশ দলে রয়েছেন পাঁচ পেসার। মোস্তাফিজুর রহমানের সঙ্গে পেস আক্রমণে রয়েছেন রুবেল হোসেন, তাসকিন আহমেদ, শফিউল ইসলাম ও শুভাশিষ রায়। পেসারদের নিয়ে দারুণ আত্মবিশ্বাসী বাংলাদেশ দলের পেস বোলিং কোচ কোর্টনি ওয়ালশ। প্রায় এক বছর ধরে বাংলাদেশের পেসারদের নিয়ে কাজ করছেন ক্যারিবীয় এই কিংবদন্তি। দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে দুই টেস্ট সিরিজ সামনে রেখে ওয়ালশ জানান, পেসাররা দারুণ উন্নতি করছেন। সর্বশেষ অস্ট্রেলিয়ার বিপক্ষে টেস্টে বাঁহাতি পেসার মোস্তাফিজ পেয়েছিলেন ৫ উইকেট। দক্ষিণ আফ্রিকার উইকেটেও মোস্তাফিজ বাজিমাত করতে পারেন। ওয়ালশ বলেন, বোলাররা প্রস্তুত রয়েছেন। ভালো বোলিং করছেন। আশা করি, ধারাবাহিকতা ধরে রেখে বোলিং করবেন তারা।
টেস্ট সিরিজ শুরু হওয়ার আগে কন্ডিশনের সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার জন্য সুযোগ পাচ্ছেন বাংলাদেশের ক্রিকেটাররা। ওয়ালশ জানান, মূল বিষয় হলো ধারাবাহিকতা ধরে রাখা। ঠিক জায়গায় বল করলে ভালো ফল এনে দেবেন পেসাররা। এ নিয়ে অনুশীলনে কাজ করছেন তিনি। পেসারদের নিয়ে আশাবাদী ওয়ালশ। তবে টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজে পেসারদের নিয়ে আলাদা পরিকল্পনা রয়েছে ওয়ালশের।

তিন দিনের প্রস্তুতি ম্যাচে খেলা চার পেসারই গতকাল উইকেট পেয়েছেন। ম্যাচের দ্বিতীয় দিন বাংলাদেশের পেস বোলিংয়ে বিপর্যয়ে পড়ে দক্ষিণ আফ্রিকার আমন্ত্রিত একাদশ। ঠিক সময়ে বোডিং পাস না পাওয়ায় দলের সঙ্গে যেতে পারেননি পেসার রুবেল হোসেন। গত বৃহস্পতিবার রাতে দক্ষিণ আফ্রিকার বিমান ধরেন তিনি। প্রস্তুতি ম্যাচ খেলতে না পারলেও টেস্ট সিরিজে খেলতে পারেন ডানহাতি এই পেসার।