‘ন্যূনতম শর্ত পূরণে ব্যর্থ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে আইনুগত ব্যবস্থা’

প্রকাশিত :১৮.১১.২০১৭, ৪:৪৩ অপরাহ্ণ

সারাবেলা ডেস্ক: ন্যূনতম শর্ত পূরণে ব্যর্থ বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী নুরুল ইসলাম নাহিদ।

শিক্ষামন্ত্রী আজ শনিবার রাজধানীর বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক সম্মেলন কেন্দ্রে ইউনিভার্সিটি অব সাউথ এশিয়ার প্রথম সমাবর্তন অনুষ্ঠানে রাষ্ট্রপতির প্রতিনিধি হিসেবে সভাপতির বক্তব্যে এ কথা বলেন।

শিক্ষামন্ত্রী বলেন, কিছু বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় এখনও তাদের ন্যূনতম শর্ত পূরণ করতে পারেনি। এভাবে তারা বেশিদিন চলতে পারবেন না। যে সকল বিশ্ববিদ্যালয় পরিবেশ ও নির্ধারিত শর্ত পূরণ করতে ব্যর্থ হয়েছে, যারা নিজস্ব ক্যাম্পাসে এখনো যাননি, একাধিক ক্যাম্পাসে পাঠদান পরিচালনা করছেন তাদের বিরুদ্ধে অব্যাহত চাপ রেখেও সঠিক ধারায় আনা কঠিন হয়ে পড়েছে। এজন্য তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ ছাড়া তারা আর কোনো পথ খোলা রাখেননি।

নুরুল ইসলাম নাহিদ বলেন, আমরা সরকারি বা বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ে অধ্যয়নকারী ছাত্র-ছাত্রীদের মধ্যে কোনো পার্থক্য করি না। তারা সকলেই আমাদের সন্তান এবং জাতির ভবিষ্যৎ। তাদের সকলের জন্যই আমরা মানসম্মত শিক্ষা এবং সকল সুযোগ নিশ্চিত করতে চাই। তিনি দেশের বাস্তবতা এবং জনগণের আর্থ-সামাজিক অবস্থা বিবেচনা করে শিক্ষার্থীদের ভর্তি ও টিউশন ফিসহ অন্যান্য ব্যয় একটি নির্দিষ্ট সীমা পর্যন্ত নির্ধারিত রাখতে উদার দৃষ্টিভঙ্গি গ্রহণের জন্য বিশ্ববিদ্যালয়গুলোর কর্তৃপক্ষকে আহ্বান করছি।
নাহিদ বলেন, বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয় পরিচালনা করতে চাইলে মানসম্পন্ন উচ্চ শিক্ষা নিশ্চিত করতে হবে। ব্যবসা ও মুনাফার চিন্তা ত্যাগ করে জনকল্যাণ, সেবার মনোভাব ও শিক্ষায় অবদান রাখার দৃষ্টিভঙ্গি নিয়ে এগিয়ে আসতে হবে।

অনুষ্ঠানে অন্যান্যের মধ্যে ইউনিভার্সিটি অব সাউথ এশিয়ার বোর্ড অব ট্রাস্টিজের চেয়ারম্যান প্রফেসর ড. এম এ মুহিত, উপাচার্য অধ্যাপক ড. এম এ ওয়াদুদ মন্ডল এবং লিপিং বাউন্ডারিজ এর প্রতিষ্ঠাতা প্রকল্প পরিচালক শাগুফে হোসেন বক্তব্য রাখেন। সমাবর্তন বক্তা ছিলেন নাগরিক টিভির চীফ অপারেটিং অফিসার ডা. আবদুন নূর তুষার।