বাঘ হয়ে শেষ চারে মাশরাফির রংপুর

প্রকাশিত :০৪.১২.২০১৭, ১২:৪৮ অপরাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট : বিপিএলের ৫ম আসরের ৩৮তম ম্যাচে খুলনা টাইটান্সকে ১৯ রানে হারিয়ে শেষ চার নিশ্চিত করল রংপুর রাইডার্স।

রোববার সন্ধ্যায় শের-ই-বাংলা জাতীয় স্টেডিয়ামে টস জিতে আগে ফিল্ডিংয়ের সিদ্ধান্ত নেন খুলনার দলপতি মাহমুদুল্লাহ। ব্যাটিংয়ে নেমে নির্ধারিত ওভারে ৬ উইকেট হারিয়ে রংপুর ১৪৭ রান তোলে। জবাবে, নির্ধারিত ওভারে ৮ উইকেট হারিয়ে খুলনার ইনিংস থামে ১২৮ রানের মাথায়।

ব্যাটিংয়ে নেমে রংপুরের ওপেনার জিয়াউর রহমান ব্যক্তিগত ৮ রানে বিদায় নেন। আরেক ওপেনার ক্রিস গেইল ২৭ বলে চারটি চার আর দুটি ছক্কায় করেন ৩৮ রান। তিন নম্বরে নামা ব্রেন্ডন ম্যাককালাম ১১ বলে ১৫ রান করে সাজঘরে ফেরেন। রবি বোপারা ১১, চামারা কাপুগেদারা ২, নাহিদুল ইসলাম ৬ রান করেন।

উইকেটরক্ষক ব্যাটসম্যান মোহাম্মদ মিঠুন ৩৫ বলে দুটি চার আর চারটি ছক্কায় ৫০ রান করে অপরাজিত থাকেন। দলপতি মাশরাফি ১১ বলে দুটি চারে ১৫ রান করে অপরাজিত থাকেন।

খুলনার জোফরা আরচার দুটি, আবু জায়েদ একটি, শফিউল ইসলাম একটি, মোহাম্মদ ইরফান একটি, কার্লোস ব্রাথওয়েইট একটি উইকেট দখল করেন।

১৪৮ রানের টার্গেটে ব্যাটিংয়ে নেমে ওপেনিং জুটি থেকেই ৬০ রান তুলে নেয় খুলনার দুই ওপেনার নাজমুল হোসেন শান্ত এবং মাইকেল ক্লিনগার। ১৮ বলে ২০ রান করে ফেরেন নাজমুল। আর ৪৫ বলে ৪৪ রান করে বিদায় নেন ক্লিনগার।

এরপরই খুলনার ব্যাটিংয়ে ধস নামে। আফিফ হোসেন ৮, মাহমুদুল্লাহ ৬, নিকোলাস পুরান ১, কার্লোস ব্রাথওয়েইট ৬ রান করে ফেরেন। জোফরা আরচার ১১ বলে দুটি ছক্কায় ১৯ রান করে ম্যাচ নিজেদের দিকেই নিয়েছিলেন। ১৮তম ওভারের শেষ বলে রানআউট হন তিনি। আরিফুল হক ১৯তম ওভারের প্রথম বলে ব্যক্তিগত ৬ রানে বিদায় নেন। শেষ ওভারে খুলনার দরকার হয় ২৪ রান। সেটা তোলা সম্ভব হয়নি শফিউল-মোহাম্মদ ইরফানদের।

কোনো উইকেট না পেলেও রংপুরের দলপতি মাশরাফি ৪ ওভারে ২১ রান দিয়ে খুলনার ব্যাটসম্যানদের আটকে রেখেছিলেন। রবি বোপারা ২ ওভারে মাত্র ৪ রান দিয়ে নেন দুটি উইকেট। সোহাগ গাজী ৪ ওভারে ২৬ রান দিয়ে নেন ১ উইকেট। উদানা, নাহিদুল ইসলাম, নাজমুল ইসলাম একটি করে উইকেট পান।

ম্যাচসেরা হন ৩৫ বলে ৫০ রানে অপরাজিত থাকা রংপুরের মোহাম্মদ মিথুন।

এ ম্যাচটি রংপুরের জন্যই ছিল মহা গুরুত্বপূর্ণ। পয়েন্ট টেবিলের চার নম্বরে থেকে খেলতে নামলেও পরের স্থানে থাকা সিলেট সিক্সার্স রংপুরকে চোখ রাঙাচ্ছিল। নাসির হোসেনের সিলেট ১১ ম্যাচে ৯ পয়েন্ট নিয়ে পাঁচ নম্বরে। এই ম্যাচ জেতার ফলে মাশরাফির রংপুর ১১ ম্যাচ খেলে পেয়েছে ১২ পয়েন্ট। জিতেই শেষ চারে চলে গেল রংপুর।

আজসারাবেলা/মুয়াজ/খেলা