বেসিক ব্যাংকের সাবেক চেয়ারম্যানকে দুদকের জিজ্ঞাসাবাদ

প্রকাশিত :০৪.১২.২০১৭, ১২:৫০ অপরাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট : বেসিক ব্যাংক থেকে প্রায় সাড়ে ৩ হাজার কোটি টাকা লুটপাটের অভিযোগ অনুসন্ধানে ব্যাংকটির চেয়ারম্যান আব্দুল হাই বাচ্চুকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক)।

৪ ডিসেম্বর সোমবার সকাল সাড়ে ৯টায় কমিশনের তলবে সেগুনবাগিচায় দুদক কার্যালয়ে হাজির হন আব্দুল হাই বাচ্চু।

পরে বেলা পৌনে ১১টায় দুদক কর্মকর্তারা তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেন বলে গণমাধ্যমকে জানান দুদকের জনসংযোগ কর্মকর্তা প্রণব কুমার ভট্টাচার্য্য।

এর আগে গতকাল রোববার পর্যন্ত দুদক বেসিক ব্যাংকের সাবেক ১০ জন পরিচালককে জিজ্ঞাসাবাদ করেছে।

তারা হলেন- ব্যাংকটির পরিচালনা পর্যদের সাবেক সদস্য আনোয়ারুল ইসলাম, আনিস আহমদ, কামরুন নাহার আহমেদ, অধ্যাপক কাজী আকতার হোসাইন, সাখাওয়াত হোসেন, ফখরুল ইসলাম, একেএম কামরুল ইসলাম, জাহাঙ্গীর আখন্দ সেলিম, শ্যাম সুন্দর শিকদার ও একেএম রেজাউর রহমান।

যদিও গত ২২ নভেম্বর থেকে ঋণ কেলেঙ্কারির এ ঘটনায় দুদকের এই জিজ্ঞাসাবাদ চলছে।
বেসিক ব্যাংক কেলেঙ্কারিতে ২০১৫ সালের ২১, ২২ ও ২৩ সেপ্টেম্বর তিন দিনে টানা ৫৬টি মামলা করে দুদকের অনুসন্ধান দলের সদস্যরা।

রাজধানীর মতিঝিল, পল্টন ও গুলশান থানায় এসব মামলায় মোট আসামি করা হয় ১৫৬ জনকে। মামলায় ২ হাজার ৬৫ কোটি টাকা অনিয়মের মাধ্যমে ঋণ দেওয়া হয় বলে অভিযোগ আনা হয়।

উল্লেখ্য, জাতীয় পার্টির প্রাক্তন সংসদ সদস্য বাচ্চুকে ২০০৯ সালে বেসিক ব্যাংকের চেয়ারম্যান পদে নিয়োগ দেয় সরকার।

২০১২ সালে তার নিয়োগ নবায়নও হয়। কিন্তু ঋণ কেলেঙ্কারির অভিযোগ উঠলে ২০১৪ সালে ব্যাংকটির ব্যবস্থাপনা পরিচালক কাজী ফখরুল ইসলামকে অপসারণ করার পর চাপের মুখে থাকা বাচ্চু পদত্যাগ করেন।

আজসারাবেলা/সংবাদ/রবি/অপরাধ/রাজধানী/জাতীয়