খালেদার ফেরার পথে রাস্তায় বিক্ষোভ, ভাংচুর ও আগুন

প্রকাশিত :০৫.১২.২০১৭, ৫:৪২ অপরাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট : রাজধানীর হাইকোর্ট ক্রসিংয়ের সামনে বিএনপির নেতা-কর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

বিএনপির নেতাকর্মীরা সড়ক অবরোধের চেষ্টা করলে বাধা দেয় পুলিশ, এরপরই শুরু হয় ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়া।

দুর্নীতির দুই মামলায় আদালতে বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়ার হাজিরাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনা ঘটে।

পুলিশের ওপর ইট-পাটকেলও নিক্ষেপ করেন বিএনপির নেতা-কর্মীরা। পরে পুলিশের ধাওয়া খেয়ে বঙ্গবাজারের সামনে ভাঙচুর ও যানবাহনে (মোটরসাইকেল) আগুন দেন বিএনপি সমর্থকরা।

ঘটনাস্থল থেকে ৭ বিএনপি নেতাকর্মীকে আটকও করেছে পুলিশ।

এ বিষয়ে ডিএমপির রমনা বিভাগের উপ-কমিশনার মারুফ হোসেন সরদার বলেন, খালেদা জিয়ার আদালত থেকে ফেরার সময় সচল রাস্তা অচল করে অবস্থান নেয় ছাত্রদল ও বিএনপির নেতাকর্মীরা। রাস্তা থেকে অবস্থান সরিয়ে নেয়ার কথা বললে তারা পুলিশের উপর ইটপাটকেল মারতে শুরু করে।

তাদের ছত্রভঙ্গ করতে টিয়ারশেল ছোড়া হয়। পুলিশের ধাওয়া খেয়ে তারা বঙ্গবাজারের দিকে চলে যায়।

শাগবাগ থানার ইন্সপেক্টর (তদন্ত) জাফর আলী বিশ্বাস জাগো নিউজকে জানান, পুলিশের ওপর হামলা, ভাংচুর ও রাস্তা অবরোধ করে যানচলাচলে বিঘ্ন সৃষ্টির অপরাধে ঘটনাস্থল থেকে ৭ জনকে আটক করা হয়েছে। এখন পরিস্থিতি স্বাভাবিক রয়েছে বলে জানান তিনি।

জাগোনিউজের ফটো সাংবাদিক বিপ্লব দীক্ষিত জানান, বঙ্গবাজারের সামনের সড়কে যানবাহনে ভাংচুর ও বিক্ষোভ করেছেন বিএনপি নেতাকর্মীরা। সেখানে তারা একটি মোটরসাইকেল আগুন দেন। পরে খবর পেয়ে সেখানে বিপুল সংখ্যক পুলিশ সদস্য মোতায়েন করা হয়।

সেখানেও বিএনপি নেতাকর্মীদের সঙ্গে পুলিশের ধাওয়া-পাল্টা ধাওয়ার ঘটনা ঘটে।

সূত্র : জাগোনিউজ

অাজসারাবেলা/সংবাদ/রবি/রাজধানী/রাজনীতি