জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী স্বীকৃতি দিচ্ছেন ট্রাম্প

প্রকাশিত :০৬.১২.২০১৭, ১১:৪১ পূর্বাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট: মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প একতরফাভাবে জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেবেন বলে জানিয়েছেন ট্রাম্প প্রশাসনের সিনিয়র কর্মকর্তারা। খবর বিবিসির।

তবে ওই কর্মকর্তারা বলছেন, ইসরায়েলে মার্কিন দূতাবাস তেল আবিব থেকে এখনই জেরুজালেমে সরিয়ে নেওয়া হবে না।

আজ বুধবার প্রেসিডেন্ট ট্রাম্পের ভাষণকে সামনে রেখে এমন তথ্য বেরিয়ে এলো। তবে আরব বিশ্বের নেতা যুক্তরাষ্ট্রের এ পদক্ষেপের ব্যাপারে শুরু থেকেই হুঁশিয়ারি উচ্চারণ করে আসছে। সৌদি আরব বলছে, ‘এটা মুসলিমদের জন্য সুস্পষ্ট উসকানি দেওয়ার শামিল’।
ইসরায়েল ও ফিলিস্তিন উভয়ই জেরুজালেমকে তাদের রাজধানী দাবি করে থাকে। তবে ১৯৪৮ সালে বিতর্কিতভাবে ইসরায়েল রাষ্ট্র গঠনের পর দেশটির রাজধানী হিসেবে জেরুজালেমকে যুক্তরাষ্ট্র প্রথম দেশ হিসেবে এটিকে স্বীকৃতি দিচ্ছে।
ট্রাম্প প্রশাসনের কর্মকর্তারা বলছেন, জেরুজালেমকে ইসরায়েলের রাজধানী হিসেবে স্বীকৃতি দেয়াকে ‘বাস্তবতা মেনে নেওয়া’ বলে মনে করেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট।
তবে কর্মকর্তারা বলছেন, শহরে সীমানা পবিত্র স্থাপনাগুলোর সঙ্গে সামঞ্জস্য করে তৈরি করা হবে। তারা বলছেন, সীমানা নির্ধারণের এ প্রক্রিয়ায় পবিত্র স্থাপনাগুলোতে কোনো প্রভাব পড়বে না।
জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস সরিয়ে নিতে স্টেট ডিপার্টমেন্টকে প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প নির্দেশ দেবেন বলেও জানাচ্ছেন ওই কর্মকর্তারা। তবে তারা বলছেন, দূতাবাস সরিয়ে নেয়ার এ প্রক্রিয়া কয়েক বছর পর্যন্ত লাগতে পারে।
উল্লেখ্য, প্রেসিডেন্টসিয়াল নির্বাচনী প্রচারণায় জেরুজালেমে মার্কিন দূতাবাস সরিয়ে নিতে ইসরায়েলপন্থী ভোটারদের প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন ট্রাম্প।

আ/সা/তারেক