'দলের নেতা-কর্মীদের কারাগারে রেখে দেশে কোন নির্বাচন হবে না' - Aj SaraBela (আজ সারাবেলা)

‘দলের নেতা-কর্মীদের কারাগারে রেখে দেশে কোন নির্বাচন হবে না’

প্রকাশিত :২২.০১.২০১৮, ৩:১৬ অপরাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট: আজ সোমবার দুপুর ১২টায় নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ের নিচে বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমানের ৮২তম জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে দুস্থদের মাঝে ত্রাণ বিতরণ অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে মির্জা ফখরুল বলেন, বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতাদের কারাগারে রেখে দেশে কোনো নির্বাচন হবে না।

মির্জা ফখরুল আরও বলেন, মিথ্যা মামলা দিয়ে বিরোধী রাজনৈতিক দলের নেতা-কর্মীদের কারাগারে রেখে দেশে কোনো নির্বাচন হবে না। মিথ্যা মামলা প্রত্যাহার করতে হবে। নির্বাচনে সবার জন্য সমান সুযোগ ‘লেভেল প্লেয়িং ফিল্ড’ তৈরি করতে হবে।

ফখরুল ইসলাম বলেন, বিএনপি চেয়ারপারসন খালেদা জিয়াকে সপ্তাহে তিন থেকে চার দিন আদালতে যেতে হয়, আর প্রধানমন্ত্রী হেলিকপ্টারে চড়ে ভোট চেয়ে বেড়াচ্ছেন। এভাবে সুষ্ঠু নির্বাচন হতে পারে না।

মির্জা ফখরুল বলেন, ‘আমাদের কথা পরিষ্কার। বর্তমান রাজনৈতিক সংকট নিরসনে নির্বাচন চাই। তবে সেই নির্বাচন হতে হবে অতি দ্রুত ও নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে। যে নির্বাচনে দেশের মানুষ তার ভোটাধিকার প্রয়োগ করতে পারে।’ তিনি বলেন, ‘আমাদের যে ভোটাধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে তা ফিরিয়ে আনতে সবাইকে জেগে উঠতে হবে। সজাগ হতে হবে।’

সরকারের উন্নয়ন কর্মসূচির সমালোচনা করে বিএনপির মহাসচিব ফখরুল বলেন, এই সরকার সবক্ষেত্রে ব্যর্থ। তাদের উন্নয়ন শুধু একটি গোষ্ঠীর জন্য। সে গোষ্ঠীর যারা ধনী, তারাই ধনী হচ্ছে। তাদের উন্নয়ন এমন যে, আজ ঢাকায় গাড়ি চলে না। ঘণ্টার পর ঘণ্টা পথেই বসে থাকতে হয়।

নিজ দলের সহযোগী সংগঠনের প্রশংসা করে ফখরুল ইসলাম বলেন, প্রতিটি ক্ষেত্রে মহিলা দল এগিয়ে চলছে। মহিলা দলই একমাত্র সংগঠন, যারা শত প্রতিকূলতার মাঝেও প্রতিটি সাংগঠনিক জেলা সফর করে কাউন্সিল করতে পারছে। এমনকি ঢাকায় যে সমস্ত কর্মসূচি পালিত হয় তাতেও পিছিয়ে নেই মহিলা দল।

মহিলা দলের সভাপতি আফরোজা আব্বাস, সাধারণ সম্পাদক সুলতানা আহমেদ, জ্যেষ্ঠ সহসভাপতি নুরজাহান ইয়াসমিন, জ্যেষ্ঠ যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক হেলেন জেরিন খানসহ সংগঠনের নেতা কর্মীরা এ সময় উপস্থিত ছিলেন।