নারীর প্রতি বৈষম্যমূলক শর্টফিল্ম নির্মাণে আসকের নিন্দা | Aj SaraBela (আজ সারাবেলা)

নারীর প্রতি বৈষম্যমূলক শর্টফিল্ম নির্মাণে আসকের নিন্দা

প্রকাশিত :১৭.০১.২০১৮, ৪:৩৯ অপরাহ্ণ

নিজস্ব প্রতিবেদক : সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ভাইরাল হওয়া ‘বৈষম্য’ শিরোনামে প্রচারিত একটি শর্টফিল্মে নারীর প্রতি বৈষম্যমূলক ও কটাক্ষপূর্ণ উক্তি ও তাদের হেয় প্রতিপন্ন করতে উস্কানি প্রদান করায় আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক) তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়েছে। সেই সঙ্গে শর্টফিল্মটির পরিচালক হায়াত মাহমুদ রাহাতসহ এর নির্মাণ এবং প্রচারের সঙ্গে যুক্ত ব্যক্তিবর্গ এবং নির্মাতা প্রতিষ্ঠান ‘হ্যারিকেন প্রোডাকশন’ এর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের দাবি করে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, সম্প্রতি অনলাইনভিত্তিক যোগাযোগ ও প্রচার মাধ্যম ফেসবুক এবং ইউটিউবে ভাইরাল হওয়া শর্টফিল্মটিতে নারীদের প্রতি বিদ্বেষপূর্ণ বিভিন্ন উক্তি করা হয়। এসব উক্তির মাধ্যমে দেশের সর্বোচ্চ আইন সংবিধানকেও কটাক্ষ করা হয়েছে বলে পরিলক্ষিত হয়। সংবিধানের ১৯, ২৭, ৩১ এবং ৩২ নম্বর অনুচ্ছেদে উল্লেখিত সমান সুযোগ ও অধিকার এবং ২৮ নম্বর অনুচ্ছেদে উল্লেখিত নারী বা শিশুদের অনূকূলে কিংবা নাগরিকদের যেকোন অনগ্রসর অংশের অগ্রগতির জন্য প্রণীত বিশেষ বিধানকেও প্রশ্নবিদ্ধ করা হয়। এ ধরনের উক্তি স্পষ্টতই সংবিধানের লঙ্ঘন। এছাড়াও শর্টফিল্মটিতে নারীদের প্রকাশ্যে ধূমপান থেকে বিরত রাখতে প্রকাশ্যে ধূমপানরত নারীদের গোপনে ভিডিও ধারণ করে তা ফেসবুকে ছড়িয়ে দিতে উস্কানি প্রদান করা হয়।

এ ধরনের প্রচারণা নারীর নাগরিক ও সামাজিক জীবনের সর্বস্তরে অংশগ্রহণের পরিবেশকে বাধাগ্রস্ত করবে। সেই সঙ্গে গোপনে নারীর ভিডিও ধারণ ও তা প্রকাশের প্রবণতাকে উস্কে দিবে। আইন ও সালিশ কেন্দ্র (আসক) দ্রুত সময়ে শর্টফিল্মটি প্রচার বন্ধে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের পাশাপাশি এর নির্মাণ ও প্রচারের সঙ্গে জড়িত ব্যক্তিদের বিচারের আওতায় আনার দাবি জানানো হয়।