যাত্রী বেশে বাসে ডাকাতি, চালক নিহত - Aj SaraBela (আজ সারাবেলা)

যাত্রী বেশে বাসে ডাকাতি, চালক নিহত

প্রকাশিত :১৩.০২.২০১৮, ১১:৪৯ পূর্বাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট : সাভারের আশুলিয়ায় টাঙ্গাইল থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী ধলেশ্বরী পরিবহন নামে একটি বাসে দুর্ধর্ষ ডাকাতির ঘটনা ঘটেছে। এ সময় ডাকাতদের অস্ত্রের আঘাতে বাসের চালক শাহজাহান মিয়া নিহত হয়েছেন।

সেই সঙ্গে আহত হয়েছেন গাড়ির হেলপার ও সুপারভাইজার। তাদের মধ্যে হেলপার বাদশা মিয়াকে গুরুতর অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

মঙ্গলবার ভোরে আশুলিয়ার নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের শ্রীপুর এলাকা থেকে বাসটি থেমে থাকা অবস্থায় উদ্ধার করে আশুলিয়া থানা পুলিশ।

নিহত শাহজাহান মিয়া টাঙ্গাইল জেলার সদর থানাধীন চরজানা গ্রামের বিমা মিয়ার ছেলে। আহত বাদশা মিয়া একই জেলার সদর থানাধীন বিশ্বাস বেতকা গ্রামের ছানোয়ার মিয়ার ছেলে। অপর আহত শহিদুল খান একই জেলার নাগরপুর থানার পাছিতা গ্রামের ইবাদত খানের ছেলে।

আশুলিয়া থানা পুলিশের উপ-পরিদর্শক ফারুক হোসেন জানান, সোমবার গভীর রাতে টাঙ্গাইল থেকে ঢাকার উদ্দেশ্যে অল্প সংখ্যক যাত্রী নিয়ে ছেড়ে আসে ইনসাফ পরিবহনের ধলেশ্বরী (ঢাকা মেট্রো ব-১১-৬৪৪৬) নামের বাসটি।

মির্জাপুর এলাকায় আসার পর যাত্রীবেশে ১৩ জন ডাকাত বাসে ওঠেন। এরপর বাসের চালককে ছুড়িকাঘাত করে পেছনের ছিটে বসিয়ে তারা বাসটির নিয়ন্ত্রণে নেয়। এ সময় বাসের হেলপারকে ছুড়িকাঘাত ও সুপারভাইজারকে মারধর করে তারা। একপর্যায়ে অস্ত্রের মুখে জিম্মি করে বাসের যাত্রীদের সব কিছু লুটে নেয়। ভোরে নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের শ্রীপুর এলাকায় বাসটি ফেলে রেখে সটকে পরে ডাকাতরা।

এসআই ফারুক হোসেন জানান, খবর পেয়ে তিনি ঘটনাস্থলে পৌঁছে বাসের ভেতর চালক, হেলপার ও সুপারভাইজারকে আহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখেন। এ সময় বাসে কোনো যাত্রী ছিল না। পরে রক্তাক্ত অবস্থায় বাসের চালক ও হেলপারকে উদ্ধার করে স্থানীয় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র হাসপাতালে পাঠানো হয়। পরে কর্তব্যরত চিকিৎসক চালক শাহজাহান মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন এবং অবস্থা গুরুতর হওয়ায় হেলপার বাদশা মিয়াকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠায়।