হারলেও বীরের মতোই খেলেছে বাংলাদেশ : পাপন - Aj SaraBela (আজ সারাবেলা)

হারলেও বীরের মতোই খেলেছে বাংলাদেশ : পাপন

প্রকাশিত :১৯.০৩.২০১৮, ৪:১০ অপরাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট : দক্ষিণ আফ্রিকায় পুরো ব্যর্থ বাংলাদেশ ঘরের মাঠেও দাঁড়াতে পারেনি শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে। ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালের পর টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজও হেরে যায় টাইগাররা। তাই নিদাহাস ট্রফিতে অংশ নেয়ার আগে কিছুটা শঙ্কা ছিল বিসিবি প্রধান নাজমুল হাসান পাপনের। তবে মাঠের দুর্দান্ত পারফর্মেন্সের পর দেশে ফিরে বিসিবি প্রধান জানালেন ফাইনালে হারলেও বীরের মতোই খেলেছে বাংলাদেশ।

অঘোষিত সেমিতে শ্রীলঙ্কাকে হারিয়ে ফাইনালে জায়গা করে নেয়া বাংলাদেশের অধরা ট্রফিটা হাতের নাগালেই চলে এসেছিল। শেষ রক্ষা হয়নি। ছয় মেরে ঠিকই জয় ছিনিয়ে নিয়েছে ভারত। ম্যাচ শেষে হতাশায় ডুবে ছিল পুরো বাংলাদেশ দল। শ্রীলঙ্কান ‍‌এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইটে সকাল ১১.৩০ মিনিটে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে অবতরণ করে বাংলাদেশ দল।

বিমানবন্দরের ভিআইপি লাউঞ্জে নাজমুল হাসান পাপন সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপে বলেন, ‘হয়তো ট্রফি জিততে পারেনি, কিন্তু ছেলেরা জান-প্রাণ দিয়ে চেষ্টা করেছে। আমি এ কয়দিন পুরো সময় দলের সঙ্গে কাটিয়েছি। আমি দেখেছি তাড়া কষ্ট করেছে এবং বার বার আমাকে বলেছে আমরা নিদাহাস ট্রফি জিততে চাই। শুধু কথায় নয় মাঠে লড়াই করে প্রায় তারা ট্রফি জিতেও ফেলেছিল। শেষ পর্যন্ত হয়নি। আসলে আমি হার জিত নিয়ে তেমন আর চিন্তা করতে চাই না। ছেলেরা ভালো খেলে বীরের মত লড়াই করেছে সেটাই বড়।’

দক্ষিণ আফ্রিকার বিপক্ষে টেস্ট, ওয়ানডে ও টি-টোয়েন্টি তিন সিরিজেই হোয়াইটওয়াশ হয় বাংলাদেশ। ধারণা করা হচ্ছিল ঘরের মাঠে জিম্বাবুয়ে ও শ্রীলঙ্কার বিপক্ষে ঘুরে দাঁড়াবে টাইগাররা। তবে উল্টো ত্রিদেশীয় সিরিজের ফাইনালে হারের পর টেস্ট ও টি-টোয়েন্টি সিরিজেও শ্রীলঙ্কার কাছে হেরে যায় বাংলাদেশ। তাই অনেকটা ঘুরে দাঁড়ানোর লক্ষ্য নিয়েই শ্রীলঙ্কায় নিদাহাস ট্রফি খেলতে যায় বাংলাদেশ দল।

এ নিয়ে পাপন বলেন, ‘যখন শ্রীলঙ্কা যাই তখন মনে ভয়-শঙ্কা ছিল। আমরা দক্ষিণ আফ্রিকা ও ঘরের মাঠে শ্রীলঙ্কার কাছে তিন ফরমেটেই হেরেছি। তার উপর এই সিরিজে বাড়তি চাপ ছিল ভারত, যারা এখন টি-টোয়েন্টির এক নম্বর দল। একটা অজানা শঙ্কা নিয়েই কলম্বো গিয়েছিলাম। এটা সত্যি, এবার হতাশা নিয়ে ফিরিনি। নিশ্চিত শিরোপার ঠিক কাছে গিয়ে ফেরাটা দুঃখজনক। তবে আমার আমার মনে হয় ছেলেরা আমাদের চেয়ে অনেক বেশি কষ্ট পেয়েছে।’

এদিকে হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে ভিআইপি লাউঞ্জে নাজমুল হাসান পাপনের সঙ্গে এ সময় উপস্থিত ছিলেন বিসিবির অপারেশন্স কমিটির চেয়ারম্যান আকরাম খান, হাই পারফরম্যান্স কমিটির চেয়ারম্যান নাইমুর রহমান দুর্জয়, ম্যানেজার খালেদ মাহমুদ সুজন, বিসিবি পরিচালক লোকমান হোসেন ও বিসিবি সিইও নিজাম উদ্দিন চৌধুরী সুজন।