সাংবাদিক নির্যাতনে অভিযুক্ত ডিবি’র সকলকে সাময়িক বরখাস্ত - Aj SaraBela (আজ সারাবেলা)

সাংবাদিক নির্যাতনে অভিযুক্ত ডিবি’র সকলকে সাময়িক বরখাস্ত

প্রকাশিত :১৯.০৩.২০১৮, ৬:২৫ অপরাহ্ণ

শামীম আহমেদ, বরিশাল: বরিশালে কর্মরত ডিবিসি নিউজ চ্যানেলের ক্যামেরাপার্সন সুমন হাসানকে হাতে হ্যান্ডক্যাফ পরিয়ে বিবস্ত্র করে অমানুষিক নির্যাতন করা অভিযুক্ত ডিবি পুলিশের এসআই মো. আবুল বাসার, এএসআই মো. আকতারুজ্জামান, এএসআই স্বপন চন্দ্র দে, কনষ্টেবল কাজী সাইফুল ইসলাম (৬৪৫), ও কনষ্টেবল মো. হাসান মামুদ(৭০৭)কে সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে।

এনিয়ে ঐ ঘটনায় জড়িত ডিবি’র সকল সদস্যকে সাময়ীক বরখাস্ত করা হয়েছে। এছাড়া সকল সদস্যকে পৃথক পৃথকভাবে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদান করা হয়। তাদের কাছ থেকে কারণ দর্শানোর জবাব পাওয়ার পর তাদের বিরুদ্বে অপরাধ অনুযায়ী প্রয়োজনীয় বিভাগীয় শাস্তিমূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলে এক প্রেসবিজ্ঞপ্তি বলা হয়েছে।

গতকাল রবিবার (১৮ মার্চ) এ ব্যবস্থ গ্রহণ করা হয়েছে বলে আজ সোমবার দুপুরে ডিবির সদস্যরা এসে প্রেস বিজ্ঞপ্তির কাগজটি দিয়ে যায়।

এছাড়া গত ১৪ মার্চ কনষ্টেবল মো. মাসুদুল হক (৯৩৮), ১৫ মার্চ কনষ্টেবল চৌধুরী রাসেল পারভেজ (৬৬৮), ও কনষ্টেবল মো. আ. রহিম (৫৭৮) কে সাময়ীক বরখাস্ত করা হয়েছিল।

গত ১৩ মার্চ দুপুরে নগর গোয়েন্দা পুলিশ (ডিবি)’র এস আই আবুল বাশার এর নেতৃত্বে সঙ্গীয় এ এস আই মো. আকতারুজ্জামান, এএসআই স্বপন চন্দ্র দে, কনষ্টেবল আ. রহিম, কনষ্টেবল কাজী সাইফুল ইসলাম, কনষ্টেবল চৌধুরী রাসেল পারভেজ, কনষ্টেবল মো. হাসান মাহমুদ, কনষ্টেবল মো. মাসুদুল হকসহ একদর ডিবি পুলিশ কোতয়ালী মডেল থানা এলাকায় সিরা ইয়াংকি- ৪ ডিউটি করাকালে ডিবিসি নিউজ চ্যানেল ক্যামেরাপার্সন সুমন সরদারের ভাতিজা মো. আরিফুর রহমান সিয়ামকে গ্রেপ্তার করার পর উক্ত সুমন সরদারের সাথে উতাপ্ত বাক্য বিনিময় ও মারধরের অভিযোগের পরিপেক্ষিতে সেদিনের ডিবির সকল সদস্যকে পুলিশ লাইন্সে সংযুক্ত করা হয়েছে।

এব্যাপারে ডিবি’র অতিরিক্ত উপ-পুলিশ কমিশনার রুনা লায়লার নেতৃত্বে তিন সদস্য তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়।

প্রাথমিক তদন্ত কমিটির রিপোর্টের পেক্ষিতে পর্যায়েক্রমে সকল সদস্যকে সাময়ীকভাবে বরখাস্ত করে ডিবি কার্যলয় থেকে প্রত্যাহার করে নেয়া হয়।

অপরদিকে ডিসি ডিবি উত্তম কুমর পালকে উক্ত স্থান থেকে সরিয়ে ডিসি ট্রাফিকের দায়িত্ব প্রদান করা হয়েছে।