তুরস্ক প্রায় তিন হাজার সামরিক কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করছে | Aj SaraBela (আজ সারাবেলা)

তুরস্ক প্রায় তিন হাজার সামরিক কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করছে

প্রকাশিত :১৯.০৪.২০১৮, ২:৪৬ অপরাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট: ২০১৬ সালের জুলাইয়ে ব্যর্থ অভ্যুত্থান চেষ্টার সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে প্রায় তিন হাজার সামরিক কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করার পরিকল্পনা করছে তুরস্ক। ওই অভুত্থান চেষ্টা যুক্তরাষ্ট্রে নির্বাসিত ধর্মীয় নেতা ফেতুল্লাহ গুলেনের পরিকল্পনায় হয়েছিল বলে অভিযোগ তুরস্কের।

তুর্কি প্রতিরক্ষা মন্ত্রী নুরেতিন সানিকলি বলেছেন, জরুরি ডিক্রির মাধ্যমে তাদের বরখাস্ত করা হবে। প্রধানমন্ত্রী দফতরে কাগজপত্র পাঠানো হয়েছে।

অভুত্থান চেষ্টার পর থেকে তুরস্ক এ পর্যন্ত ১৫০ জেনারেলসহ ৮ হাজার ৫৬৮ জন সামরিক কর্মকর্তাকে বরখাস্ত করেছে।

অভ্যুত্থান চেষ্টার সময় তুর্কি সেনাবাহিনীর একটা অংশ দাবি করে প্রেসিডেন্ট রিসেপ তাইয়্যেপ এরদোয়ানকে দায়িত্ব থেকে সরিয়ে দেয়া হয়েছে ও দেশের নিয়ন্ত্রণ তারা নিয়েছেন। কয়েক ঘণ্টা পরই অভ্যুত্থান চেষ্টা ব্যর্থ হয়।

ওই ঘটনার পর থেকে জরুরি অবস্থা জারি রয়েছে তুরস্কে। ওই অভ্যুত্থান চেষ্টায় ভূমিকা রাখার অভিযোগ তার পর থেকে গণমাধ্যম ও বিরোধী দলগুলোর উপর চলছে দমন-নিপীড়ন।

গুলেন ও অভ্যুত্থান চেষ্টার সঙ্গে জড়িত থাকার সন্দেহে গ্রেফতার হয়েছেন হাজারো মানুষ। সামরিক কর্মকর্তাসহ ১ লাখ ৪০ হাজারের বেশি সরকারি কর্মচারী ও সাংবাদিক চাকরি হয়েছেন।

গেল মঙ্গলবার তুরস্কেকে অবিলম্বে জরুরি অবস্থা প্রত্যাহারের আহ্বান জানিয়েছে ইউরোপীয় কমিশন। তবে তুরস্কের প্রতিরক্ষামন্ত্রী জরুরি অবস্থার পক্ষে সাফাই গেয়ে বলেছেন, এতে শুধু সন্ত্রাসী সংগঠন, সন্ত্রাসী ও তাদের সমর্থকদেরই অসুবিধা হচ্ছে।

এদিকে গুলেনের বিরুদ্ধে তুরস্ক যে অভিযোগ তুলেছে সেটি তিনি অস্বীকার করে আসছেন। তার অনুসারীদের ধরপাকড় বন্ধের দাবিও জানিয়েছেন তিনি। সূত্র : প্রেস টিভি।

আজ সারাবেলা/সংবাদ