রাতে ছাত্রীদের হলছাড়া: প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগ দাবি | Aj SaraBela (আজ সারাবেলা)

সুফিয়া কামাল হল
রাতে ছাত্রীদের হলছাড়া: প্রাধ্যক্ষের পদত্যাগ দাবি

প্রকাশিত :২০.০৪.২০১৮, ৭:৫৫ অপরাহ্ণ

ডেস্ক রিপোর্ট: সুফিয়া কামাল হল থেকে কোটা সংস্কার আন্দোলনে সক্রিয় ছাত্রীদের গভীর রাতে বের করে দেয়ার ঘটনায় প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক সাবিতা রেজওয়ানার অনতিবিলম্বে পদত্যাগ দাবি করেছে বাংলাদেশ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। শুক্রবার বিকাল সাড়ে ৫টায় ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) রাজু ভাস্কর্যের পাদদেশে বিক্ষোভ পরবর্তী সংক্ষিপ্ত সমাবেশে এ দাবি জানানো হয়।

ছাত্র অধিকার পরিষদের যুগ্ম-আহ্বায়ক নুরুল হক নূর বলেন, সাংবাদিকদের যেন কিছু না বলে এজন্য ছাত্রীদের কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছে হল প্রশাসন। আমি এখান থেকে বলতে চাই- যাদের হল থেকে বের করে দেয়া হয়েছে, দ্রুত তাদের হলে ফিরিয়ে নিতে হবে।

একইসঙ্গে এই কলঙ্কজনক ঘটনার জন্য সুফিয়া কামাল হলের প্রাধ্যক্ষ অধ্যাপক সাবিতা রেজওয়ানার অবিলম্বে পদত্যাগ দাবি করেন তিনি।

সরকারের উদ্দেশে নূর বলেন, আমরা প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণার উপর সম্পূর্ণ আস্থাশীল। কিন্তু প্রধানমন্ত্রীর সেই ঘোষণা এখনো প্রজ্ঞাপন আকারে জারি না হওয়ায় শিক্ষার্থীদের মনে অস্থিরতা বিরাজ করছে। অতি দ্রুত প্রধানমন্ত্রীর ঘোষণা বাস্তবায়ন করা হোক।

ছাত্র অধিকার পরিষদের আরেক যুগ্ম-আহ্বায়ক রাশেদ খান বলেন, ঢাবিতে আতঙ্ক বিরাজ করছে। শিক্ষার্থীদের ভয়ভীতি দেখানো হচ্ছে। এই কোটা সংস্কার আন্দোলন দুই মাস ধরে হচ্ছে। কিন্তু তখন কোনো অভিযোগ দেয়া হয়নি। কিন্তু এখন নানা অপপ্রচার চালিয়ে প্রাণনাশের হুমকি দিচ্ছে।

হলের শিক্ষার্থীদের ব্যারিকেড দিয়ে আটকে রাখা হয়েছে দাবি করে তিনি বলেন, হলের শিক্ষার্থীদের আন্দোলনে অংশগ্রহণ করতে দেয়া হচ্ছে না। তাদের হেনস্তা করা হচ্ছে।

আজকের কর্মসূচিতে ছাত্রীদের অংশগ্রহণ কম উল্লেখ করে কোটা সংস্কার আন্দোলনের এই নেতা বলেন, ছাত্রীদের বিভিন্নভাবে হয়রানি করা হচ্ছে। তাদের ভর্তি বাতিল করে দেয়ার হুমকি দিচ্ছে। এটা অন্যায়।

এর আগে রাজু ভাস্কর্য থেকে একটি মিছিল শাহবাগ হয়ে আবার রাজু ভাস্কর্য ও নীলক্ষেত মোড় হয়ে রাজু ভাস্কর্যে সংক্ষিপ্ত সমাবেশে মিলিত হয়।

এসময় শিক্ষার্থীরা ‘আমার বোন বাইরে কেন, প্রশাসন জবাব চাই’, ‘ভয় দেখিয়ে আন্দোলন, বন্ধ করা যাবে না’সহ বিভিন্ন স্লোগান দেন এবং ‘রাতের অন্ধকারে হলের মেয়েদের বহিষ্কার কেন?’, ‘নিপীড়নের বিরুদ্ধে রুখে দাঁড়াও এবং ‘এই নির্লজ্জ প্রশাসন লইয়া আমরা কী করিব’ লেখা প্ল্যাকার্ড বহন করেন।