নরসিংদীতে ট্রলি উল্টে ও ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত ৪ - Aj SaraBela (আজ সারাবেলা)

নরসিংদীতে ট্রলি উল্টে ও ট্রেনে কাটা পড়ে নিহত ৪

প্রকাশিত :২০.০৬.২০১৮, ৬:৩৮ অপরাহ্ণ

আজ সারাবেলা রিপোর্ট: নরসিংদীর রায়পুরায় পৃথক দুর্ঘটনায় চারজন নিহত ও ১৫ জন আহত হয়েছে। উপজেলার খাকচর এলাকায় বুধবার সকালে ফুটবল খেলতে যাওয়ার সময় খেলোয়ারদের বহনকারি ট্রলি উল্টে দুইজন মারা যায়। এদিকে রায়পুরায় ট্রেনে কাটা পড়ে আরো দুই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে।

ট্রলি উল্টে নিহতরা হলেন- রায়পুরা উপজেলার পলাশতলী ইউনিয়নের টুকিপুরা গ্রামের মৃত সুলতান ভূইয়ার ছেলে মামুন ভুইয়া (১৮) ও একই এলাকার মফিজ উদ্দিনের ছেলে রবিউল মিয়া (২০)।

প্রত্যক্ষদর্শী আজহারুল ইসলাম ও মানিক মিয়া জানান, বুধবার সকালে একটি ট্রলি নিয়ে টুকিপাড়া এলাকা থেকে প্রায় ৩০ জন যুবক রায়পুরা ডিগ্রি কলেজে ফুটবল খেলার জন্য যাচ্ছিল। ট্রলিটি বেপোরোয়া গতিতে চালানোর কারণে খাকচর এলাকায় নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে পাশের খাদে পড়ে যায়। এতে ঘটনাস্থলেই মামুন মারা যায় এবং হাসপাতালে নেয়ার পথে রবিউল মারা যায়।

এ ঘটনায় আহত হয় আরো ১৫ যুবক। আহতদের মধ্যে সজিব মিয়া ও অজ্ঞাত আরেকজনকে আশঙ্কাজনক অবস্থায় ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

রায়পুরা থানার দায়িত্বপ্রাপ্ত কর্মকর্তা রাফিউল করিম এর সত্যতা নিশ্চিত করে বলেন, নিহতদের লাশ ময়নাতদন্তের জন্যে নরসিংদী সদর হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে।

নরসিংদীর রেলওয়ে পুলিশ জানান, বুধবার সকালে রায়পুরার মেথিকান্দা এলাকায় ট্রেনে কাটা পড়ে মৃত এক অজ্ঞাত মহিলার লাশ পড়ে থাকতে দেখে খবর দিলে রেল পুলিশ গিয়ে লাশটি উদ্ধার করে। ধারণা করা হচ্ছে রাতের যে কোনো সময় ট্রেনে কাটা পরে ওই মহিলার মৃত্যু হয়েছে। এছাড়া আমিরগঞ্জ বাজারের পাশে রেললাইন পাড় হওয়ার সময় এমদাদুল হক নামে (৪৫) এক ব্যক্তি ট্রেনে কাটা পড়ে মারা যান।

নরসিংদী রেলওয়ে পুলিশ ফাড়ির ইনচার্জ আবু সায়েম চৌধুরী ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জানান, সকালে পারাবত ট্রেনের নিচে পরে ওই ব্যক্তি মারা যাওয়ার খবর পেয়ে সকালে লাশটি উদ্ধার করা হয়। এমদাদুলের বাড়ি নরসিংদী সদর উপজেলার বাদুয়ারচর গ্রামে।

এ ঘটনায় ভৈরব রেলওয়ে থানায় অপমৃত্যুর মামলা দায়ের করা হয়েছে। এই নিয়ে এক সপ্তাহে নরসিংদীতে টেনে কাটা পড়ে পাঁচটি মৃত্যুর ঘটনা ঘটলো।

আজসারাবেলা/সংবাদ/এসএস/সারাদেশ

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*