ফয়েজ আহম্মদ নতুন জনপ্রশাসন সচিব - Aj SaraBela (আজ সারাবেলা)

ফয়েজ আহম্মদ নতুন জনপ্রশাসন সচিব

প্রকাশিত :২৪.০৬.২০১৮, ৬:০৫ অপরাহ্ণ

আজ সারাবেলা রিপোর্ট: জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের নতুন সচিব হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের সচিব ফয়েজ আহম্মদ।

রোববার জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে এই নিয়োগ দিয়ে আদেশ জারি করা হয়েছে।

অন্যদিকে জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. মোজাম্মেল হক খান স্বেচ্ছায় অবসরে যাচ্ছেন। তাকে ৩০ জুন থেকে স্বেচ্ছা অবসর দিয়ে আরেকটি আদেশ জারি করা হয়ছে।

আদেশে বলা হয়েছে, চাকরির ২৫ বছর পূর্ণ হওয়ায় ‘সরকারি কর্মচারী আইন, ১৯৭৪’ অনুযায়ী ৩০ জুন থেকে তাকে সরকারি চাকরি থেকে অবসর দেয়া হল।

জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় সাধারণত সিভিল সার্ভিসগুলোর নিয়ন্ত্রণ এবং শর্তাবলি নির্ধারণের নীতিমালা প্রণয়নের কাজ করে থাকে। এ মন্ত্রণালয়কে নিয়োগ পদ্ধতি, বয়সসীমা, যোগ্যতা, কতিপয় এলাকার জন্য এবং লিঙ্গভিত্তিক পদ সংরক্ষণ, স্বাস্থ্যগত উপযুক্ততা, পরীক্ষা, নিয়োগ, পদায়ন, বদলি, প্রেষণ, ছুটি, ভ্রমণ, জ্যেষ্ঠতা, পদোন্নতি, বাছাই, অবসর, অবসরভাতা পরিকল্পনা, পুনর্নিয়োগ, চুক্তিভিত্তিক নিয়োগ, পেনশন এর শর্তাদি, পদমর্যাদা নির্ধারণ করতে হয়।

নতুন জনপ্রশাসন সচিব ফয়েজ আহম্মদ ২০১৭ সালের ১৯ অক্টোবর স্বাস্থ্য শিক্ষা ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব নিয়োগ পান। চলতি বছরের ২৬ এপ্রিল তিনি সচিব হিসেবে পদোন্নতি পান।

ফয়েজ আহম্মেদ ১৯৮৫ সালের প্রশাসন ক্যাডারের কর্মকর্তা। তার গ্রামের বাড়ি পটুয়াখালীতে।

তিনি ১৯৯৮-২০০১ সাল পর্যন্ত তৎকালীন বস্ত্র ও পাট প্রতিমন্ত্রীর একান্ত সচিব ও সহকারী একান্ত সচিব ছিলেন। তিনি ২০০২-০৬ সাল পর্যন্ত কিশোরগঞ্জের হোসেনপুরের উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা এবং রাজবাড়ী ও চট্টগ্রামের জেলা প্রশাসক হিসেবে দায়িত্ব পালন করেন।

এছাড়া তিনি পরিবেশ ও বন মন্ত্রণালয়ের যুগ্ম সচিব ও স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব হিসেবে কাজ করেন।

পরিবার কল্যাণ বিভাগের নতুন সচিব সালেহ উদ্দিন

স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ বিভাগের ভারপ্রাপ্ত সচিব হিসেবে নিয়োগ পেয়েছেন ময়মনসিংহের বিভাগীয় কমিশনার জি এম সালেহ উদ্দিন।

অন্যদিকে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের অতিরিক্ত সচিব মো. দিলওয়ার বখ্তকে পরিকল্পনা কমিশনের ভারপ্রাপ্ত সদস্য (ভারপ্রাপ্ত সচিব পদমর্যাদায়) নিয়োগ দেয়া হয়েছে।

দুদক কমিশনার হচ্ছেন মোজাম্মেল হক

মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জানা গেছে, জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয় থেকে স্বেচ্ছা অবসরে যাওয়ার পর মোজাম্মেল হক খান দুর্নীতি দমন কমিশনের কমিশনার নিয়োগ পাচ্ছেন।

দুদকের কমিশনার (অনুসন্ধান) নাসিরউদ্দিন আহমেদের মেয়াদ শেষ হচ্ছে ২৫ জুন। এজন্য ইতোমধ্যে একজন কমিশনার নিয়োগের সুপারিশ দিতে পাঁচ সদস্যের একটি বাছাই কমিটি গঠন করেছে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ।

কমিশনার নিয়োগের জন্য এই কমিটির রাষ্ট্রপতির কাছে পাঠানো সুপারিশে যে দুইজনের নাম রয়েছে তাদের একজন মোজাম্মেল হক খান। রাষ্ট্রপতি মোজাম্মেল হক খানকে কমিশনার নিয়োগ দিয়ে এ সংক্রান্ত ফাইল অনুমোদন করেছেন। শিগগিরই এ বিষয়ে আদেশ জারি করা হতে পারে বলে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে জানা গেছে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

*