শুভ নববর্ষ, ডুডলটি প্রদর্শন করছে গুগল

সারাবেলা রিপোর্ট: আজ বাংলা নববর্ষের প্রথম দিনে মঙ্গল শোভাযাত্রার প্রতীকী এ রঙিন ছবির মাধ্যমে নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়েছে গুগল। তাদের ডুডল পেজে লিখেছে, ‘শুভ পহেলা বৈশাখ’।

গুগলের হোমপেজে যাঁরা আজ যাচ্ছেন, শুরুতেই তাঁদের চোখে পড়ছে বেঙ্গল টাইগার। সত্যিকারের বাঘ নয়, বরং পয়লা বৈশাখ উপলক্ষে মঙ্গল শোভাযাত্রায় যে বাঘের প্রতিকৃতি তৈরি করা হয়, তারই অ্যানিমেটেড রূপ সার্চ বারটির ওপরে দেখতে পাচ্ছেন । লাল, সাদা, হলুদ, কালো রঙে আঁকা সেই বাঘ বাঁশের মাথায় তুলে ধরেছেন শোভাযাত্রায় অংশ নেওয়া মানুষেরা। গুগল লেখাটিকেই বাঘের আকারে সাজিয়ে এবারের নববর্ষের ডুডলটি প্রদর্শন করছে গুগল।

গুগলের হোম পেজে দেখানো বিশেষ লোগো হচ্ছে এ ডুডল। বিশেষ কোনো দিন কিংবা বিশেষ কোনো ব্যক্তির জন্য সার্চ বক্সের ওপরে নিজেদের লোগো বদলে বিশেষ দিনটির সঙ্গে মানানসই নকশার যে লোগো তৈরি করে গুগল, তা–ই ডুডল।

ডুডল পেজে নববর্ষের শুভেচ্ছা জানিয়ে গুগল লিখেছে, বাংলা ক্যালেন্ডারের প্রথম দিনটিতে নতুন করে সবকিছু শুরু করার সুযোগ করে দেয় মানুষকে। এর মধ্যে ঘর সাজানো, আলপনা তৈরির মতো নানা বিষয় রয়েছে। আশা ও আনন্দ জাগানো দিনটিতে নাচ, গান, কবিতা আবৃতি, রাস্তায় শোভাযাত্রার মতো আয়োজন করা হয়। ঢাকায় বের হয় বর্ণিল মঙ্গল শোভাযাত্রা। বাঁশের মাথায় রঙিন প্রতিকৃতিতে জায়গা করে নেয় বেঙ্গল টাইগার।

গুগল লিখেছে, ১৯৮৯ সাল থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে চারুকলা অনুষদের উদ্যোগে শোভাযাত্রা নিয়মিত হয়ে আসছে। জাতিসংঘের সংস্কৃতিবিষয়ক সংস্থা ইউনেসকো ২০১৬ সালের ৩০ নভেম্বর মঙ্গল শোভাযাত্রাকে তাদের ‘রিপ্রেজেনটেটিভ লিস্ট অব ইনট্যানজিবল কালচারাল হেরিটেজ অব হিউম্যানিটি’র তালিকায় অন্তর্ভুক্ত করেছে।

উল্লেখ্য, গুগলের দেখানো ম্যাপ অনুযায়ী নববর্ষের ডুডলটি শুধু বাংলাদেশ থেকেই দেখা যাচ্ছে। গত বছরেও গুগল পয়লা বৈশাখের ডুডল তৈরি করেছিল। ওই ডুডলে প্রতীকী রঙিন হাতি তুলে ধরেছিল গুগল।

আজ সারাবেলা/সংবাদ/সিআ/বিজ্ঞান- প্রযুক্তি