ওমান উপসাগরে তেলের ট্যাংকারে হামলার জন্য ইরানকে দায়ী করলো মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ ওমান উপসাগরে তেলের ট্যাংকারে হামলার জন্যে ইরানকে দায়ী করেছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র। মার্কিন পররাষ্ট্র মন্ত্রী মাইক পম্পেও বলেছেন, ভয়ানক ওই হামলার ব্যবহৃত অস্ত্র ও গোলাবারুদ পরীক্ষা করে যুক্তরাষ্ট্র এই সিদ্ধান্তে পৌঁছেছে।

এর আগে ওমান সাগরের উপকূলীয় অঞ্চলে ‘দুর্ঘটনায়’ দুটি তেলবাহী ট্যাঙ্কার ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে বলে নিশ্চিত করে মার্কিন ৫ম নৌবহর। ঘটনার পর ইরান ও লেবাননের সংবাদপত্রের প্রাথমিক খবরে বলা হয়েছিলো, ট্যাঙ্কারের বাইরে থেকে দুটি বিস্ফোরণের শব্দ শোনা যায়। ওমান, পাকিস্তান ও সংযুক্ত আরব আমিরাতের বন্দরগুলোকে সাহায্যের আহ্বান জানানো হয়, আক্রান্ত দুটি ট্যাংকার থেকে।

মার্কিন নৌবাহিনীর পঞ্চম বহর নিশ্চিত করেছে, দুর্ঘটনাকবলিত ট্যাঙ্কার দুটির একটি ‘ফ্রন্ট আলটিয়ার’ যা মার্শাল দ্বীপপুঞ্জের পতাকাবাহী জাহাজ, এটি সংযুক্ত আরব আমিরাত থেকে তাইওয়ানের উদ্দেশে যাচ্ছিলো। আরেকটি প্যানম্যানিয়ান পতাকাবাহী ‘কোকুক কারেজিয়াস’ নামের জাহাজ, যেটি সৌদি আরব থেকে সিঙ্গাপুর যাওয়ার কথা ছিলো।

দুর্ঘটনায় ট্যাংকার দুটি ভস্মীভূত হলেও ক্রুদের নিরাপদে সরিয়ে নেয়া সম্ভব হয়েছে। এমন সময় এই হামলার ঘটনা ঘটলো, যখন যুক্তরাষ্ট্র ও ইরানের মধ্যে চরম উত্তেজনাকর সম্পর্ক বিরাজ করছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.