জাকির নায়েককে ফিরে পেতে ইন্টারপোলের শরণাপন্ন ভারত

আন্তর্জাতিক ডেস্কঃ মালয়েশিয়া থেকে ইসলাম ধর্মপ্রচারক জাকির নায়েককে ভারতে ফিরিয়ে আনতে দিল্লি ইন্টারপোলের সাহায্য চেয়েছে। ভারতে তার বিরুদ্ধে মুদ্রা পাচারের দায়ে মামলাও হয়েছে। দিল্লি মালয়েশিয়ার ওপর চাপ সৃষ্টি করতে ইন্টারপোলকে ‘রেড নোটিশ’ জারি করতে বলছে। অবশ্য মালয়েশিয়ার প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মদ ইতিমধ্যে সাফ বলে দিয়েছেন জাকির নায়েককে তার দেশে রাখার অধিকার দেশটির আছে।

ভারতের ‘এনফোর্সমেন্ট ডাইরেক্টরেট’এর পক্ষ থেকে ইন্টারপোলকে বলা হয়েছে জাকির নায়েককে ভারতের ফিরিয়ে আনার ব্যাপারে সহায়তা করতে।

ভারতে একসময়ের জনপ্রিয় এই টিভি উপস্থাপকের বিরুদ্ধে ১৯৩ কোটি রুপি অবৈধভাবে পাচারের অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে। এরপর মুম্বাইয়ের একটি আদালত জামিন অযোগ্য গ্রেফতারের পরোয়ানা জারি করে তার বিরুদ্ধে। এরফলেই ইন্টারপোলের কাছে জাকির নায়েককে ফিরে পেতে আবেদন করতে পারছে দেশটি। ফলে ইন্টারপোলের অপর সদস্য দেশ মালয়েশিয়াও বেশ কিছু চাপে পড়েছে জাকির নায়েককে আশ্রয় দিয়ে। এছাড়া জাকির নায়েকের সৌদি আরবে স্থায়ীভাবে বসবাসের জন্যে পাসপোর্টও রয়েছে। এই ধর্মপ্রচারকের ভারত ও বিভিন্ন দেশ লাখ লাখ ভক্ত রয়েছে। তবে তার বিরুদ্ধে ভারতে সন্ত্রাসকে সমর্থনের অভিযোগও রয়েছে। নায়েক এ অভিযোগ করেন যে ভারতের বিজেপি সরকার বা হিন্দু মৌলবাদীরা তার বিরুদ্ধে অপপ্রচার চালিয়ে যাচ্ছেন।

২০১৬ সালে ঢাকায় হলি আর্টিজানের সন্ত্রাসী ঘটনার পর জাকির নায়েকের পিস টিভির সম্প্রচার বন্ধ করে দেয় বাংলাদেশ সরকার। ওই সন্ত্রাসী ঘটনায় অংশ নেয়া কয়েকজন জানায় তারা জাকির নায়েকের মাধ্যমে উদ্বুদ্ধ হয়েছিল। তবে জাকির নায়েক তার বিরুদ্ধে এধরনের সন্ত্রাসে সমর্থনের অভিযোগ অস্বীকার করেন। জাকির নায়েক চরম ওয়াবি মতবাদের অনুসারী বলেও অভিযোগ রয়েছে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.