নতুন বাবা-মা পেল মহাসড়কে পড়ে থাকা শিশুটি

সারাবেলা রিপোর্ট: গাজীপুর মহানগরীর পোড়াবাড়ি এলাকায় ঢাকা-ময়মনসিংহ মহাসড়কের পাশে কুড়িয়ে পাওয়া এক নবজাতককে দত্তক নিয়েছেন মহানগরীর মারিয়ালী এলাকার নিঃসন্তান দম্পতি মো. আক্তার হোসেন-শিউলী আক্তার।

শিশুটিকে দত্তক নিতে একাধিক দম্পতি গাজীপুর জেলা ও পুলিশ প্রশাসনের কাছে আবেদন করেন। পরে জেলা প্রশাসক ড. দেওয়ান মুহাম্মদ হুমায়ূন কবীর রোববার মো. আক্তার হোসেন-শিউলি আক্তার দম্পতিকে যথাযথ প্রক্রিয়ায় দত্তক দেয়ার অনুমতি প্রদান করেন। আইনি প্রক্রিয়া শেষে রোববার বিকেলে শিশুটিকে হাসপাতাল থেকে বাড়ি নিয়ে যান ওই দম্পতি।

শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসক প্রণয় ভূষন দাস জানান, গত মঙ্গলবার (৪ জুন) রাতে নগরীর পোড়াবাড়ি এলাকায় একটি বাজারের ব্যাগে নবজাতকটি (কন্যা) পরিত্যাক্ত অবস্থায় পড়েছিল। রাত সাড়ে ১১টার দিকে পোড়াবাড়ি এলাকার সফিকুল ইসলাম ওই রাস্তার পাশ দিয়ে হেঁটে বাসায় ফিরছিলেন। এ সময় পরিত্যক্ত ওই বাজারের ব্যাগ থেকে শিশুর কান্না শুনতে পান। পরে তিনি ব্যাগে নবজাতকটিকে দেখতে পান। শিশুটিকে উদ্ধার করে স্থানীয় ২৩নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর মাওলানা মুনজুর হোসাইনের সহায়তায় শহীদ তাজউদ্দীন আহমদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। প্রথম দিকে শিশুটিকে সুস্থ মনে হলেও বর্তমানে তার জন্ডিস ধরা পড়েছে।

চিকিৎসক প্রণয় ভূষন দাস আরও জানান, নবজাতকটিকে দত্তক পাওয়া দম্পতি তাদের বাড়িতে নিয়ে গেছেন। তারা তাদের নিজেদের দায়িত্বে শিশুটির চিকিৎসাসহ প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেবেন। হাসপাতালে থাকাকালে সফিকুল ইসলামের আত্মীয় শিউলী আক্তার শিশুটির দেখাশুনা করেছেন।

সফিকুল ইসলাম জানান, প্রায় ১৬ বছর আগে আক্তার-শিউলীর বিয়ে হয়। এখন পর্যন্ত তাদের কোনো সন্তান হয়নি। আক্তার হোসেন সম্পর্কে তারই বেয়াই। অনেকদিন ধরেই ওই দম্পতি দত্তক নেয়ার জন্য বাচ্চা খুঁজছিলেন। শিশুটি পাওয়ার পর থেকেই শিউলী আক্তার হাসপাতালে বাচ্চাটির দেখাশুনা করেছেন।

আজসারাবেলা/সংবাদ/ইআর/সারাদেশ

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.