নানা প্রতিকূলতা মোকাবিলা করে বাঙালি মেয়ে সায়নী সমুদ্র চ্যানেল জয়

সারাবেলা রিপোর্ট: ইংলিশ চ্যানেল জয়ের পর এবার ক্যাটালিনা সমুদ্র চ্যানেল জয় করলেন বাঙালি মেয়ে সায়নী দাস। টানা ১২ ঘণ্টা ৪৬ মিনিট প্রশান্ত মহাসাগরের হিমশীতল বুকে সাঁতার কেটে ক্যাটালিনা চ্যানেল অতিক্রম করেন তিনি।

২১ বছর বয়সী সায়নী পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলার কালনার মেয়ে।

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ায় প্রশান্ত মহাসাগরের গভীরে অবস্থিত সানটা ক্যাটালিনা দ্বীপ। এ দ্বীপ থেকে স্থানীয় সময় শুক্রবার (৭ জুন) রাত ১২টা ৩০ মিনিটে সাঁতার শুরু করেন সায়নী দাস। ১২ ঘণ্টা ৪৬ মিনিট বিরামহীন সাঁতার কেটে পরদিন শনিবার দুপুর ১২টা ২১ মিনিটে সমুদ্রের রেনচো প্যালেস ভেরডেস তীরে পৌঁছান তিনি।

৩৩ কিলোমিটার দীর্ঘ এ চ্যানেল অতিক্রম করতে সায়নী দাসকে সাঁতার কাটতে হয় স্রোত আর ঢেউয়ের প্রতিকূলে। গাঢ় অন্ধকার, প্রচণ্ড ঠান্ডা, তীব্র স্রোত, বিশাল ঢেউ আর হাঙ্গর-তিমির আতঙ্ক উপেক্ষা করে ক্যাটালিনা চ্যানেল জয় করেন সাহসিনী জলকন্যা সায়নী।

দীর্ঘ এই সাঁতারের বিচারক ছিলেন ক্যাটালিনা চ্যানেল সুইমিং ফেডারেশনের কর্মকর্তা ড্যান সিমোনেলি। তিনি জানান, সায়নী নানা প্রতিকূলতা মোকাবিলা করে এ চ্যানেল অতিক্রম করেছেন। এ সাঁতার ছিল অনেক কষ্টসাধ্য। সে এই কঠিন কাজটি করে বিজয়ী হয়েছে।

চ্যানেল অতিক্রম শেষে সায়নী দাস তার প্রতিক্রিয়ায় বলেন, ‘প্রথমে কিছুটা কষ্টসাধ্য মনে হলেও সমুদ্রতীর দেখতে পেয়ে নিজেকে আত্মবিশ্বাসী মনে হয়। চ্যানেল জয়ের পর নিজের কাছে বিশ্বাস হচ্ছিল না।‘

এর আগে ২০১৭ সালে তিনি ৩২ কিলোমিটার দীর্ঘ ইংলিশ চ্যানেল এবং ২০১৮ সালে অষ্ট্রেলিয়ার রোটনেস্ট চ্যানেল অতিক্রম করেন।

স্পন্সরদের সহযোগিতা পেলে আগামীতে আরও পাঁচটি সমুদ্র চ্যানেল জয় করে বিশ্বের সবচেয়ে বড় সাতটি সমুদ্র চ্যানেল বা সেভেন ওশেনস্ জয় করতে চান তিনি।

আজ সারাবেলা/সংবাদ/সিআ/আন্তর্জাতিক/বাংলাদেশ

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.