প্রতিমন্ত্রী খসরু’র আহ্বানে, সাবেক ছাত্রনেতা অরুণের নেতৃত্বে নেত্রকোণায় লাখো মানুষের আনন্দ র‌্যালী

সারাবেলা রিপোর্টঃ ২৩ জুন। দিনটি ছিল রবিবার। আওয়ামী লীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী। কাউকে ডাকতে হয়নি, বলতে হয়নি, যে যার মতো দিনটিকে উদযাপন করবার জন্য প্রস্তুতি নিয়েছিল আগে থেকেই।তবে তাদের প্রণোদিত করতে দায়িত্ব নিয়েছিলেন সাবেক ছাত্র নেতা, নেত্রকোণা  জেলা ট্রাক ও কাভার্ড ভ্যান মালিক সমিতির সভাপতি,  একেএম আজহারুল ইসলাম অরুন।আর সকলের মধ্যমণি হয়ে র‌্যালির আহ্বান করেছিলেন, বীর মুক্তিযোদ্ধা, জেলা আওয়ামীলীগ সাধারন সম্পাদক, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মৎস ও প্রাণী সম্পদ মন্ত্রনালয়ের প্রতিমন্ত্রী আশরাফ আলী খান খসরু।

উল্লেখ্য, সকল বাধা-বিপত্তি ও দেশী-বিদেশী চক্রান্ত উপেক্ষা করে দীর্ঘ ২১ বছর পর ১৯৯৬ সালের জুন মাসে জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে আওয়ামী লীগ রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় আসে। দীর্ঘ ষড়যন্ত্রের অংশ হিসাবে আবারও ২০০১ সালে আওয়ামী লীগকে ষড়যন্ত্র করে ২০০১-২০০৮ পর্যন্ত ক্ষমতার বাহিরে রাখা হয়। শুরু হয় দলীয় নেতাকর্মীদের উপর অমানসিক নির্যাতন, ব্যাপক হত্যাকাণ্ড। ২০০৭ সনের ১/১১ এ সেনাশাসিত সরকার আবারও আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব শূন্য করতে চেয়েছে, শেখ হাসিনাসহ অগণিত নেতাকর্মীকে জেলে আটক করে, কিন্তু কোন কিছুই আওয়ামী লীগকে নেতৃত্ব শূন্য করতে পারেনি। শত বাধা-বিপত্তি, জুলুম, নির্যাতন উপেক্ষা করে ২০০৮ সনে সেনাবাহিনীর ব্যবস্থাপনায় সুষ্ঠু ও নিরপেক্ষ নির্বাচনে নিরঙ্কুশ সংখাগরিষ্ঠতা পায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ। পরবর্তীতে ২০১৩ ও ২০১৮ সনে অনুষ্ঠিত নির্বাচনেও জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে দলটি নিরঙ্কুশ সংখাগরিষ্ঠতা নিয়ে এদেশের মানুষের সেবা করার সুযোগ পায় এবং শেখ হাসিনা ৪র্থ বারের মত বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী নির্বাচিত হন।

দেশ আজ উন্নয়নের মহাসড়কে।শেখ হাসিনা আজ সারা দুনিয়ার কাছে রোল মডেল। জনমানুষের এই নেত্রী আর প্রিয় দল আওয়ামী লীগের ৭০তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদ্‌যাপন করতে মিছিলটা শহরের মূল সড়ক প্রদক্ষিণ করে বেলা ১১ টায় দলীয় আনন্দ  র‌্যালিতে অংশ গ্রহণের জন্য পার্টি অফিস পৌঁছে। তারপরের দৃশ্য কেবলই ইতিহাস। ছাত্র-শিক্ষক, চাকুরীজীবি, পেশাজীবী, শ্রমজীবি, কৃষক-শ্রমিক সকল স্তরের মানুষ অংশ নেয় এ আনন্দ র‌্যালিতে। লাখো মানুষের সমাগম ঘটে উৎসবমুখর এ আয়োজনে। আজহারুল হক অরুণের নেতৃত্বে র‌্যালিতে আরো অংশ নেন নেত্রকোণা জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সভাপতি কামরুন্নেছা আশরাফ দীনা, জেলা মহিলা আওয়ামী লীগ সাধারণ-সম্পাদক হাবীবা রহমান খান শেফালী এমপি, জেলা আওয়ামীলীগ এর যুগ্ম সাধারণ-সম্পাদক ও  পৌর মেয়র নজরুল ইসলাম খান।

অনুষ্ঠানে মৎস ও প্রাণিসম্পদ বিভাগের প্রতিমন্ত্রী বীর মুক্তিযোদ্ধা আশরাফ আলী খসরু প্রাণের সংগঠন আওয়ামী লীগকে আরো শক্তিশালী করার জন্য এবং জননেত্রী শেখ হাসিনার সকল সিদ্ধান্ত বাস্তবায়ন করার জন্য সবাইকে আহবান জানান।

৭০তম বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন, আলহাজ্ব মতিউর রহমান খান।

দিনব্যাপী বর্ণাঢ্য আয়োজনে মানুষের স্বঃতস্ফূর্ত অংশগ্রহণ আওয়ামী লীগের আগামী দিনের পথ চলার প্রেরণা যুগিয়েছে বহুগুণ। আওয়ামী লীগের প্রতি মানুষের এ অমল ভালোবাসা উন্নয়নেরই সাক্ষ্য বহন করে।

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.