জুন মাসে সেনাবাহিনীর হাতে ৩০ সন্ত্রাসী গ্রেফতার

সারাবেলা রিপোর্ট: পার্বত্য চট্টগ্রামে শান্তি শৃঙ্খলা রক্ষায় বাংলাদেশ সেনাবাহিনী গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে আসছে। এরই ধারাবাহিকতায় গত জুন মাসে (২০১৯) পার্বত্য চট্টগ্রামে ৩০ জন সন্ত্রাসী গ্রেফতার, ৪টি দেশীয় অস্ত্র ও ৬ রাউন্ড অ্যামোনেশন উদ্ধার করা হয়।

মঙ্গলবার (৯ জুলাই) আন্তঃবাহিনী জনসংযোগ পরিদফতরের (আইএসপিআর) এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়, গুরুতর অসুস্থ ৫ জন বেসামরিক উপজাতি ব্যক্তিকে দুর্গম পার্বত্য অঞ্চল থেকে হেলিকপ্টারযোগে চট্টগ্রাম সিএমএইচে নিয়ে উন্নত চিকিৎসা প্রদান করা হয়েছে। একই সাথে পার্বত্য চট্টগ্রামের যোগাযোগ ব্যবস্থা ও আর্থসামাজিক উন্নয়নে সেনাবাহিনী গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা রেখে চলেছে।

চলতি বছরের ১৬ জুন সেনাবাহিনীর সদর দফতরের সেনাসদর কনফারেন্স হলে (হেলমেট) ‘সেনাসদর নির্বাচনী পর্ষদ-২০১৯’ এর উদ্বোধন করা হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে পর্ষদের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন। সেনাবাহিনীর কর্মকর্তাদের পদোন্নতির লক্ষ্যে আয়োজিত ৫ দিনব্যাপী (১৬ থেকে ২০ জুন) এ পর্ষদের কার্যক্রম চলে।

এ পর্ষদের মাধ্যমে কর্নেল থেকে ব্রিগেডিয়ার জেনারেল এবং লে. কর্নেল থেকে কর্নেল পদবিতে পদোন্নতির জন্য সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। সেনাবাহিনীর সর্বোচ্চ নীতি-নির্ধারণী পর্যায়ের কর্মকর্তাদের সমন্বয়ে গঠিত এ পর্ষদের মাধ্যমে সেনাবাহিনীর ভবিষ্যৎ জ্যেষ্ঠ নেতৃত্বের জন্য যোগ্য ও দক্ষ অফিসাররা সরকারের অনুমোদন সাপেক্ষে পদোন্নতি পেয়ে থাকেন।

গত ২২ জুন একাদশ জাতীয় সংসদের প্রতিরক্ষা বিষয়ক স্থায়ী কমিটির সভাপতি মোহাম্মদ সুবিদ আলী ভূঁইয়ায় নেতৃত্বে ১০ সদস্যের একটি প্রতিনিধিদল জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশন এলাকা পরিদর্শনের লক্ষ্যে কঙ্গো যান। সফরকালে প্রতিনিধিদল কঙ্গোতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে নিয়োজিত বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর কন্টিনজেন্টসমূহ পরিদর্শন করেন। পাশাপাশি তারা বাংলাদেশ বিমান বাহিনী এবং বাংলাদেশ পুলিশের কন্টিনজেন্টসমূহও পরিদর্শন করেন।

এছাড়া প্রতিনিধিদল কঙ্গোতে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনের এসআরএসজি, ডিএসআরএসজি, ফোর্স কমান্ডার, ইউএন পুলিশ কমিশনার এবং ইতুরি প্রদেশের গর্ভনরের সাথে মতবিনিময় করেন।

গত ২৬ জুন বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদ সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিক পরিদর্শন করেন। পরিদর্শনকালে তিনি সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিকের রাষ্ট্রপতি, প্রতিরক্ষা উপদেষ্টা, সেনাবাহিনী প্রধান, এসআরএসজি ও ফোর্স কমান্ডারের সাথে সাক্ষাৎ করেন।

সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিকের রাষ্ট্রপতি বাংলাদেশি শান্তিরক্ষীদের পেশাদারিত্ব, মানবিক গুণাবলী ও অবকাঠামোগত উন্নয়নে বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর প্রত্যক্ষ অবদানের ভূয়সী প্রশংসা করেন। সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিকের প্রতিরক্ষা উপদেষ্টা ও সেনাবাহিনী প্রধান বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধানকে সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিকের নবগঠিত সেনাবাহিনীকে প্রশিক্ষণ সহায়তা প্রদানের জন্য অনুরোধ করেন।

বাংলাদেশ সেনাবাহিনী প্রধান এ প্রস্তাবটি আন্তরিকতার সাথে গ্রহণ করেন এবং তাৎক্ষণিকভাবেই সে দেশে জাতিসংঘ শান্তিরক্ষা মিশনে নিয়োজিত বাংলাদেশ মেডিকেল কন্টিনজেন্টকে প্রশিক্ষণ সহায়তা প্রদানের নির্দেশ দেন।

এছাড়াও তিনি সেন্ট্রাল আফ্রিকান রিপাবলিকের সেনাবাহিনীর অফিসার ও অন্যান্য পদবির সেনাসদস্যদের ব্যক্তিগত ও দলগত প্রশিক্ষণ সহায়তা প্রদানের পাশাপাশি ইংলিশ ভাষা শিক্ষা প্রশিক্ষণ সহায়তারও প্রস্তাবনা দেন।

আজসারাবেলা/সংবাদ/রই/জাতীয়

মন্তব্য করুন

Please enter your comment!
Please enter your name here

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.